ইউজার লগইন

⊰ধূসর স্বপ্ন: অমাবস্যা......‼⊱

2012021813295690421441743914.jpg
⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆
ঠিক যে মুহূর্তে পৃথিবীর বুকে রঙীন প্রজাপতি হয়ে উড়তে চায়লে....ঠিক তখন-ই তোমার পৃথিবীটা ক্রমেই ছোট হয়ে আসছে। রঙীন পৃথিবীর রঙে রাঙানো কিংবা রঙ বদলের খেলা .....কোনোটির সঙ্গে তাল মেলাতে না পেরে তুমি আজ পৃথিবীর নির্মমতায় বিমুগ্ধ। জানি, তোমার সাধ অনেক....কিন্তু জীবনের কঠিন বাস্তবতাকে আজ বিনা প্রতিবাদে মাথা পেতে নিতে হচ্ছে বলে তোমার সাধ্যও সীমিত। এ সীমিত সাধ্যের সীমাবদ্ধতা যেমনি তোমার স্বপ্নিল সাধগুলোকে সংকুচিত করেছে....তেমনি তোমাকেও.....

আমি যদি পরী হতাম....তোমাকে উড়ে গিয়ে নিয়ে আসতাম। তারপর দুজনে সাদা শাড়ি পড়ে জোৎস্নায় ভিজতাম...হাত দুটো প্রসারিত করে, মুগ্ধ নয়নে আকাশ দেখতাম, তোমার বিষন্নতা, কান্না, কষ্টগুলোকে অকারণ হাসিতে চূর্ণ করতাম......কিন্তু আমি যে পরী নই....!

তুমি ভালো নেই জানি, তবুও অবান্তর প্রশ্নটা করছি......কেমন আছ তুমি, আদিবা? শুনেছি তোমার বিয়ে। সত্যি!!?? ভয় পাচ্ছ? পাওয়ারই কথা!!.....জানি ভয়ে তোমার অন্তরাত্মা শুকিয়ে যাচ্ছে আর মনে মনে নারী জন্মকে দোষারোপ করছ।
শুনেছি আরব দেশে আগেরকার দিনে মেয়েদের জ্যান্ত কবর দেয়া হতো..... ভারতবর্ষে মেয়েদের জ্যান্ত পুড়িয়ে মারা হতো স্বামীর চিতায়। এসব কুপ্রথা এখন আর নেই। কিন্তু এর সাথে কি অদ্ভূত এক মিল দেখতো! আজও মেয়েরা নানানভাবে লাঞ্ছনার শিকার হচ্ছে।

আদিবা, যার সাথে তোমার বিয়ে ঠিক হয়েছে, শুনেছি তিনি অনেক টাকার মালিক! আর বরের বয়স পঞ্চাশের কাছাকাছি ....কিন্তু তোমার বয়স তো মাত্র ঊনিশ! তুমি তো এ ধরনের স্বামী কামনা করোনি! কোনো মেয়েই করেনা। তোমার মতামতের কোনো তোয়াক্কাই করা হয়নি, এমনকি তুমি চিৎকার করে অমত প্রকাশ করলেও কোনো লাভ হবে না।

জানি না, তোমার জায়গায় আমি হলে কি করতাম। এটুকু জানি, আকাশ-বাতাস এক করে চিৎকার শুরু করে দিতাম। জানি তোমার মা-ও অসহায়। তোমার পক্ষ নিয়ে কথা বলতে গেলে তাকেও সবাই বাঁকা চোখে দেখবে। তাই তোমার পুরো জীবনটাই যদি-কিন্তু-উপরন্তুর উপর ছেড়ে দিয়েছ....সঁপে দিয়েছ ভাগ্যের উপর।

⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆

দেখতে দেখতে সেই দিনটি চলে এল...তোমার বিয়ের দিন। মেহেদী রঙে রঙীন হয়ে এলো শুভ পরিণয়ের দিনটা। পড়ন্ত সন্ধ্যায় পশ্চিম আকাশে আবীর ছড়িয়ে ঘনিয়ে সেই গোধূলিতে এলো তোমার বিয়ের লগ্নটা। তোমাদের বাড়িতে প্রস্তুতি চলছে নানা আয়োজনের। শহরের বিখ্যাত রঙ মহল থেকে আনা হয়েছে ড্যান্সার। ভারতীয় নামি ফ্যাশন হাউস থেকে আনা হয়েছে বিয়ের পোশাক। আধুনিক বাদ্যযন্ত্রের চিক চিক, রঙ-বেরঙের ফুল আর বাতি পু‌রো বাড়িকে করেছে আলোকিত। কিন্তু আদিবা.....তোমার মনের অলিতে গলিতে সর্বত্রই যে অন্ধকার...গহীন অন্ধকার!! ছোপ ছোপ কন্ঠ তোমার বুকের ভেতর বিশাল হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করছে। রাজ্যের সব কান্না লাফিয়ে তোমার গলায় দলা পাকিয়ে উঠে আসছে। বিয়ে বাড়ির ব্যস্ততার নিচে চাপা পড়েছে তোমার ঊনিশ বছরের স্বপ্নের মৃত্যু। বিয়ে বাড়িতে আসা আত্মীয়দের রঙ বেরঙের পোশাকের ঝিকমিক ঝলকানি আর ভারী ভারী অলংকারের নিক্কনও তোমার মনকে রাঙাতে ব্যর্থ। ছোট বাচ্ছাদের দৌড়-ঝাপ, ভোজনবিলাসীদের ভোজনলীলা, রূপবিলাসীদের রূপলীলা.......কিছুই তোমার চোখে পড়ছে না, অথচ তুমি চেয়ে চেয়ে সব দেখছ।

পুরো বাড়ি সরব আজ তোমাকে ঘিরেই....কেবল তু‌মিই নীরব। পুরো বাড়িতে বয়ে গেল আনন্দের হিল্লোল....আর তোমার মনে বাজছে দুঃখের বীণ। বয়স্ক স্বামী নিয়ে কিভাবে কাটবে বাকি জীবন...তরুণী মনের আকুলতা সে কতটুকুই বা বুঝবে....এসবই তোমার ভাবনা। তিন ঘন্টা সময় নিয়ে তোমাকে সাজানো হলো লাখ লাখ টাকার অলংকার আর প্রসাধনীতে।

তুমি যে স্বপ্ন দেখেছিলে তার কি হবে? ডাক্তার হয়ে সাজাবে নিজের জগৎটাকে....। বিয়ে বাড়িতে আসা মানুষগুলো যেন তোমার সেই স্বপ্নকেই পায়ের তলায় পিষতে এসেছে। তোমার বোবাকান্নার ধ্বনি যেন প্রতিধ্বিত হচ্ছে আমার বুকে।
আজও দেশে সভ্যতার বাঁধানো দেয়ালের পরতে পরতে নানান রূপ-ঢঙে নারীর ওপর যে নির্যাতন চলছে এর শেষ কোথায়? তুমি কেন মেনে নিচ্ছ এ অবিচার?

আদিবা, তুমি পারবে না শিকল ভাঙার গান ধরতে?....জেগে উঠতে রৌদ্রতাপে?

⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆╰☆╮⋆

পোস্টটি ৮ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

মেসবাহ য়াযাদ's picture


টিপ সই

লাবণী's picture


ধন্যবাদ মেসবাহ ভাই Smile

সন্ধ্যা প্রদীপ's picture


ভালো লাগলো.

লাবণী's picture


ধন্যবাদ সন্ধ্যা প্রদীপ Smile

তানবীরা's picture


টিপ সই

লাবণী's picture


ধন্যবাদ তারাপু Big Hug

স্বপ্নের ফেরীওয়ালা's picture


জীবন বড় বিচিত্র। খুব কাছ থেকে দেখা এক মেয়ের জীবন......ম্যাট্রিক পরীক্ষার পরেই তার বাবা বিয়ে দিয়ে দিতে চেয়েছিলেন। এর মধ্যে সে ম্যাট্রিকের রেজাল্ট খুব ভাল করায় আর আত্মীয়দের প্রবল আপত্তিতে তার বাবা বিয়ে দিতে পারেন নি। পরে মেয়েটি ডাক্তার হয়, প্রেম হয় পারিবারিকভাবে পরিচিত এক ছেলের সাথে, বিয়ে হয়। কিন্তু প্রবল প্রেমের সেই বিয়ে টেকে দুই বছর মাত্র, এর মধ্যে কোলে আসে মেয়ে। বিচ্ছেদের পরে মেয়েকে নিয়ে এখন মধ্য তিরিশে একাই চলতে হচ্ছে তাকে। দূর্ভাগ্যের শিকল অনেক সময় বেশ শক্ত হয়...

~

লাবণী's picture


ইস! Sad কি নির্মম!! Sad যেন মেয়ে হওয়াটাই তার জন্য অভিশাপ!! Sad

মীর's picture


লেখা ভালো হইসে, কিন্তু ছবি ভালো হয় নাই।

১০

লাবণী's picture


যাক, অন্তত লেখা ভালো লেগেছে Smile
আর ছবি বদলাইয়া দেই??? Laughing out loud
অসংখ্য ধন্যবাদ মীর দা Smile

১১

বিষণ্ণ বাউন্ডুলে's picture


টিপ সই

১২

লাবণী's picture


ধন্যবাদ বিষণ্ণ ভাই Smile

১৩

আরাফাত শান্ত's picture


ছবিটা দেইখা ভাবতেছিলাম এইটা কোন কিসিমের পরী? নরমাল পরী নাকি হুর পরী? নাকি বাপ্পা মজুমদারের পরী?

লেখা দারুন হয়েছে!

১৪

লাবণী's picture


এইটা তো লাবণী পরী Tongue
অসংখ্য ধন্যবাদ শান্ত ভাই Smile

১৫

আনন্দবাবু's picture


ভাল্লাগ্‌লো। Smile Smile

১৬

লাবণী's picture


ধন্যবাদ আনন্দবাবু Smile

১৭

জোনাকি's picture


ছবিটা অনেক পছন্দ হইছে Smile

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

লাবণী's picture

নিজের সম্পর্কে

রঙিন রোদের জ্বালাতন সহ্য করা আশ্রয়হীন পাখির মতো শুধু ডানায় ভর করে দিগন্তের পর দিগন্ত পাড়ি দিয়ে একসময় আমরা হয়ে পড়ি পথহীন দিকভ্রান্ত পথিক। পায়ের তলায় এসে মাথা কুটতে থাকে পথেরা। ক্লান্ত জীবনে নিঃশব্দের মতো সন্ধ্যা নামে...রাত আসে। জোৎস্না রাতের উজ্জ্বলতায় চেয়ে দেখি বৃষ্টি ভেজা চতুর্দশীর মতো তারায় সেজে আছে আকাশ। শুধু ভাবি...সুবিস্তৃত অসীম আকাশের কোনো এক কোণে কি একটু আশ্রয় পাওয়া যাবে না?