ইউজার লগইন

এস, এম, তাহমিদুর রহমান'এর ব্লগ

একুশে ব্লগ

শুরু হলো পথচলা…

আমরা বিজয় রাখিব ধরে, আমরা শির রাখিব উচ্চ,
আমরা হবো না কখনো নত, সকল বিঘ্ন করিব তুচ্ছ।

ভালবাসা

চারটি ধ্বনির মিলনে তোমার অমোঘ উৎপত্তি
সীমাহীন আকাশের কোলজুড়ে তোমার আবির্ভাব
তোমার সাহচর্যে সিন্ধুগর্ভে ফোটে যত আশ্চর্য কুসুম
রহস্যের অতীন্দ্রিয় ইন্দ্রজাল বোনা নর-নারীর হৃদয়ে
উন্মাদ বিলাসী খেলা খেলে তোমারই আনন্দভৈরবী
তবেই চৈতন্য ঘটে নিঃসঙ্গ রক্তমাংসের এই অধম কবির।

আজও প্রত্যেক নর তার নারীকে স্পর্শ করে তোমার বাহুডোরে
যেন জোয়ার-ভাটার সন্ধি নদীবক্ষে উল্লসিত ভাবচ্ছবি
আলিঙ্গনে সৃষ্টি হয় নতুন পাহাড়ে সদ্য তোলা কুটিরের
পলিসিক্ত মাঠে রচিত হয় কোন অলৌকিক সাঁকোর
তোমার অমর রূপের প্রখর আবেগে বিশ্ব হারায় দিশা
ভেসে চলে হাস্যচপল পানসী তোমারই ঢেউয়ে ঢেউয়ে
তখনই চৈতন্য ঘটে নিঃসঙ্গ রক্তমাংসের এই অধম কবির।

তুমি সারাজীবন থেকেছ আমার কাছে অপরিচিত
তোমাকে দেখেছি আমি সবসময় অন্য নরনারীর হৃদয়ে
দেব-দেবীর মত পূজা কর তুমি তাদের
শুধু আমাকেই করেছ তুমি চিরকাল অবহেলা
সারাজীবন নাগালের বাইরেই রয়ে গেলে তুমি

ভার্যাপতি যোগ

আজ সকাল থেকেই বাতাসে শীতের ধূলো উড়ছে,

সেই ধূলোর মধ্যে কি মানুষের অবয়ব তৈ্রি হয়?

তা নাহলে হায়, সেই ধূলো কেন তৈ্রি করছে তোমার মুখশ্রী?

কপালে লাল টিপের সাথে হালকা লাল ঠোঁট,

গলায় ছোপ ছোপ সুগন্ধি পাউডার যেন গ্রাম্যতা এনে দিয়েছে তোমাকে,

সেই সরলতায় খোঁপাভরা শিউলি ফুল আমাকে আমন্ত্রন জানায়;

আহ্, এবার আমায় পাগল কইবে পাড়ার লোকে,

নিন্দের সাথে তোমার সখীর হিংসে জুটবে কপালে;

তাই চুপচাপ রাতের অপেক্ষায় বসে থাকি,

ভালবাসার মাঝখানে হঠাৎই শরীরটা জীবন্ত হয়ে উঠে,

কামুক প্রেমিক হয়েও, তখন আর লজ্জা অনুভব করি না।।