ইউজার লগইন

তোমার জন্য মিছেমিছি কাব্য লিখি না

মাঝে মাঝে ভাবি তোমায় কিছু উপহার পাঠাবো
না দামি ব্র্যান্ডেড কোন শার্ট কিংবা ঘড়ি নয়
ফরাসি পারফিউম বা ট্র্যান্ডি সানগ্লাসও নয়
খুব সাধারণ কিছু, খুব সাধারণ
ধরো রোজ গায়ে মাখি যে সাবানটা তার কিছু অংশ
কিংবা কিছুটা টুথপেষ্ট, বডিলোশন বা শ্যাম্পু
তা নইলে রোজ যে জ্যাম জেলি খাই
বোয়াম থেকে তুলে দিবো তাদের কিছুটা বা
আমার প্রিয় চকোলেটের বাক্স থেকে একমুঠো চকোলেট।

আমি এখন আর জানি না তোমার প্রিয় রঙ কোনটা
জানি না কোন গান এখন উতলা করে তোমায়
কোন বইটা পড়ে অনেক ভাবো তুমি
যেমন তুমিও জানো না আমার প্রিয় কবি কে এখন
কোন সিনেমা দেখে আমি হাঁপুস নয়নে কেঁদেছি
মাঝরাতে ঘুম ভেঙে গিয়ে আর ঘুম না এলে
বুক ব্যাথা করলে কি কি সব ভাবি।

একদিন দুজনের সব জানার প্রতিজ্ঞা ছিলো
পৃথিবী ধ্বংস হয়ে গেলেও আমরা দুজনে দুজনার
ছোট থেকে ছোট দুঃখ, সামান্য থেকে সামান্য আনন্দ
একসাথে ভাগ করে নিবো, পাশে থাকবো।
যারা আমাদের জীবনে ঠিক তেমন গুরুত্বপূর্ণ হয়তো নয়
এই ধরো তোমার অফিসে পিওন কিংবা আমার বাড়ির দারোয়ান
তারা জানে তুমি এখন কোন ব্র্যান্ডের সিগারেট খাও আর কোন
বেকারীর কেক এখন আমার ভালো লাগে, শুধু আমরা দুজন বাদে

যেখানে যেখানে গেলে তোমার আমার কখনো দেখা হয়ে যেতে পারে
সে সমস্ত জায়গাগুলো আমি খুব সন্তর্পনে এড়িয়ে যাই
আমি জানি তুমিও যাও তাই আমাদের আর কখনো দেখা হয় না
অতীত ভুলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার নাম জীবন
আমরা তাই রোজ জীবন নিয়ে সামনে এগোই।
তারপরো কেনো যেনো মাঝে মাঝে ইচ্ছে করে
দীর্ঘ এই নীরবতাকে ভেঙে দিয়ে কিছু উপহার পাঠাতে।
কেমন আছো জানতে আর জানাতে ইচ্ছে করে।

********************************

কি করেছো আমার লেখা চিঠিগুলো
সেই আবেগ কাঁপা হৃদয়ের রক্ত মাখা চিঠিগুলো
কোথায় সেগুলো? অফিসের ড্রয়ারে নাকি ব্যাঙ্কের লকারে
নাকি পুড়িয়ে দিয়ে নিশ্চিত করেছো নিজেকে।
নীল রঙা চিঠিগুলোতে ছিল সাধারণ কিছু শব্দ
যেগুলোর মানে আমরা দুজন বাদে কেউ জানে না।
বারবার পড়তে পড়তে অনেক চিঠিই মুখস্ত ছিলো আমাদের
আজ যখন কাউকে চিঠি চালাচালি করতে দেখি
ভাবি কোথায় হারিয়ে গেলো সেই সুগন্ধি অমূল্য চিঠি গুলো।

*******************

কেমন আছো, কি করছো? গান শুনছো?
নাকি হাঁটতে বেড়িয়োছো বন্ধুদের সাথে
অকারণ আড্ডা আর সিগ্রেট ফোঁকা?
অফিস করছো? নেটে আড্ডা দিচ্ছো?
আকাশের দিকে তাকিয়ে একলা সন্ধ্যায়
তারাদের মাঝে আমাকেই কি খুঁজে যাচ্ছো
মন খারাপ করা বৃষ্টি ঝরা নির্জন পথে হেঁটে
যেতে যেতে আমার কথাই কি ভেবে যাচ্ছো?
নির্মলেন্দুর কবিতার মাঝে তুমি আমায় পাও
প্রিয় রবীন্দ্রসংগীতগুলো তুমি আমার জন্য গাও
আমরা কোথাও নেই কিন্তু আমরা আছি
কখনো দূরে আবার নিঃশ্বাসের কাছাকাছি

তানবীরা
২৫.০১.২০১১

উৎসর্গঃ পৃথিবীর সব দেবদাস আর কৃষ্ণকলিদেরকে

ভালোবাসা দিবসে ভালোবাসার গান

পোস্টটি ১৬ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

মীর's picture


কি লিখছেন বস্! মাথা তো পুরা আউলায় গেল। কি অসাধারণ!

বাতিঘর's picture


' কি লিখছেন বস্! মাথা তো পুরা আউলায় গেল। কি অসাধারণ!' (কপিরাইট মীর)

তানবীরা's picture


আপনেরা দুইজন দেখি উত্তম কুমার, বারি খাইলেই মাথা আউলায়। আবার বারি দেন মগজ জায়গামতো এসে যাবে, খিকজ

বাতিঘর's picture


গানের জন্য ব্যাপক ধইন্যা গো বইন( ধনেপাতার ইমু দিতে পারি না কেনু!)। আর লোপামুদ্রা গান ভালা পাই। শুভেচ্ছা থাকলো।

তানবীরা's picture


গানটা আমার মাথায় শোনা অব্ধি ২৪ ঘন্টা বাজতেছে বাতিদা। এটার একটা মেল ভার্সন আছে আনিন্দ্য'র গাওয়া। কিন্তু আমার এটা বেশি মনে ধরেছে।

ধন্যবাদ ধনেপাতার জন্য।

নরাধম's picture


কবিতা পড়ে কোনদিন দেখা না হওয়া, প্রেমে না পড়া প্রেমিকার জন্য মনটা কেমন জানি উৎলিয়ে উঠল! নাহ, ছ্যাকা খাওয়াটাও দারুন ব্যাপার, উদাস হওয়ার একটা দারুন অজুহাত!

কবিতা খুবই ভাল হয়েছে, আমি কঠিন কবিতা বুঝিনা, এরকম ঝরঝরে-টাইপ কবিতাই পড়ে মজা পাই। থ্যাংকু!

তানবীরা's picture


কবিতা খুবই ভাল হয়েছে, আমি কঠিন কবিতা বুঝিনা, এরকম ঝরঝরে-টাইপ কবিতাই পড়ে মজা পাই।

দাদা, এটা কি প্রশংসা নাকি সুশীলভাবে বোকা বলা Tongue

বুঝিয়ে দেন Wink

নরাধম's picture


না, দিদি এটা অন্তরস্থল থেকে প্রশংসাবাণী। উত্তরাধুনিক কোবতে আছে না কিছু? ওসবের কোথায় শুরু কোথায় শেষ সেটা বুঝিনা। সেসবের সাথে তুলনা করে বলছি আর কি! তবে আপনার প্রশংসা ভাল না লাগলে ফেরৎ দেন, অন্য কাউরে প্রশংসা করব!

তানবীরা's picture


দিয়ে ফেরত নিতে হয় না দাদাভাই Puzzled

১০

হাসান রায়হান's picture


আহ ক্যাপ্টেন!

১১

তানবীরা's picture


হাই মেজর Big smile

১২

লীনা দিলরুবা's picture


কি করেছো আমার লেখা চিঠিগুলো
সেই আবেগ কাঁপা হৃদয়ের রক্ত মাখা চিঠিগুলো
কোথায় সেগুলো? অফিসের ড্রয়ারে নাকি ব্যাঙ্কের লকারে
নাকি পুড়িয়ে দিয়ে নিশ্চিত করেছো নিজেকে।

ব্যাঙ্কের লকারে চিঠি রাখার আইডিয়াতো ইউনিক!
কবিতায় চরম লাইক।

১৩

তানবীরা's picture


THNX

১৪

নীড় সন্ধানী's picture


একটা দিন আমার কথা ভেবে তুমি সিগ্রেট ছুড়ে ফেলতে পারো না?
-নাহ পারি না!
একটি দিন আমার কথা ভেবে তুমি সিগ্রেট সহ্য করে নিতে পারো না?
-নাহ পারি না!
.............................
ধুর তোমাদের দিয়ে নিঃশর্ত প্রেম হবে না!

১৫

তানবীরা's picture


প্রেম কখনো নিঃশর্ত হয় না। ইশ্বর প্রেম ও না

১৬

মুকুল's picture


কি করেছো আমার লেখা চিঠিগুলো
সেই আবেগ কাঁপা হৃদয়ের রক্ত মাখা চিঠিগুলো
কোথায় সেগুলো? অফিসের ড্রয়ারে নাকি ব্যাঙ্কের লকারে

লাইনগুলা পৈড়া আমার অনেক আগে লেখা কিছু লাইনের কথা মনে আসলো।

তবুও
আমি থাকবোনা জানি একদিন এই স্থূল দেহে;
তখন সূক্ষ্ণ জ্যোতির্ময় অবয়বে
ঘুরবো কিনা এই বিশ্ব ব্রহ্মান্ডে
তা আমার জানা নেই।
অথবা বিলীন হয়ে যাবো কিনা অনন্ত চেতনায়
তাও আমার জানা নেই।

তবে এইটুকু জানি,
আমার এই সব কবিতারা থাকবে।

হয়তো ধূলো জমবে কয়েক প্রস্থ পান্ডুলিপির ’পরে,
বহুদিনের স্যাঁতসেঁতে স্মৃতির মত পড়ে থাকবে নিঝুম ভাঁড়ার ঘরে।
অথবা কোন এক নারীর গোপন চিলেকোঠায়,
নিষিদ্ধ শব্দাবলীর মত
কিম্বা সযত্ন অবহেলায়।

১৭

তানবীরা's picture


অথবা কোন এক নারীর গোপন চিলেকোঠায়,
নিষিদ্ধ শব্দাবলীর মত
কিম্বা সযত্ন অবহেলায়।

মুকুল, তুমি এখন যে লিখো না, সেটা আমাদের সাথে তোমার প্রতারনা, স্রেফ প্রতারনা

১৮

লীনা দিলরুবা's picture


মুকুলের কবিতা দেখে আমারও চিঠি বিষয়ক পুরনো কবিতা দিতে ইচ্ছে করলো Smile

বলেছি, 'চিঠি লিখো'-জানলায় বসে
ঋদ্ধ হতে হতে খোলা আকাশের দিকে তাকিয়ে
থাকা নয়
নির্ভেজাল বলেছি, 'অবশ্যই লিখবে চিঠি'।

মারাত্মক মধ্যরাতে নির্ঘুম রাতজাগা,
ছ'তলার উন্নাসিক বাতাসের সাথে যুদ্ধ করতে থাকা
কিঙবা টবের ঐতিহাসিক ক্রিসেনথিমামের সাথে
গল্প করতে করতে একটা লম্বা চিঠি।

অথবা সান্ধ্য আসরে তেপায়া টেবিল নিয়ে বসে
ফুরফুরে মেজাজে দিনের চৌত্রিশতম সিগারেট ফুঁকতে ফুঁকতে
জনি ওয়াকারের গ্লাসের ঠিক মধ্যিখানে
বুদ্বুদ ওঠাতে ওঠাতে লিখে ফেলো একটা ফ্লোরাইড টুথপেস্টের মত
স্নিগ্ধ চিঠি।

তুমি বলেছ লিখবে। না লিখলে
বৃষ্টি হবে কেন, সাইবেরিয়া থেকে কেন
উড়ে আসবে অচেনা
বালিহাস। তুমি আমার গা ছুঁয়ে বলেছিলে লিখবে।

চিঠির প্রতিত্তরের ভাষাও পরিস্কার ঠিক করে রেখেছি
গতজীবনের কাছে চাওয়া ছিল অনেক
স্বপ্নের কাছে চাওয়া ছিল অনেক
প্রত্যাশার মেঘ রঙ মেলেছিল একআকাশ সমান লম্বা...............
অথচ আজ সময় আমাকে ভুলিয়ে ভালিয়ে নিয়ে গেছে
জজসাহেবের বাড়ি
হেরে যেতে যেতে সময়ের পাঁচিল ধরে ফেলতে ফেলতে চলে যাচ্ছে
প্রহরী সময়। দ্রুত হাতে রচনা করে যাচ্ছি
গত জীবনের কবিতাগুলো।

প্রায় অনেক দিন হয়ে গেল
অপেক্ষায় অপেক্ষায়
ধুসর থেকে ধুসরতর হয়ে গেছে আমার শরীর
এখনো ফুল ফোটে, পাখি ডাকে
পূবদিক ছিন্নভিন্ন করে সূর্য ওঠে প্রতিদিন
ভোরবেলা সবার অজান্তে টুপ করে ঝরে পড়ে শিউলি ফুলও।

তবু তোমার চিঠির অপেক্ষা করে করে যাই
যদি বাতাস বলে আছি
নীল আকাশ বলে আছি
পাহাড়ের ঘাস বলে আছি
বাগান মাঠ পৃথিবী বলে আমরা আছি
তাহলে আমি বিষণ্নতা ঝেড়ে ফেলে
অপেক্ষা করে যাব তোমার চিঠির।

১৯

মুকুল's picture


জীবনে কেউ প্রেমের চিঠি দিলো না। Sad
ফাটাফাটি হইছে লেখা। a

২০

তানবীরা's picture


তবু তোমার চিঠির অপেক্ষা করে করে যাই
যদি বাতাস বলে আছি
নীল আকাশ বলে আছি
পাহাড়ের ঘাস বলে আছি
বাগান মাঠ পৃথিবী বলে আমরা আছি
তাহলে আমি বিষণ্নতা ঝেড়ে ফেলে
অপেক্ষা করে যাব তোমার চিঠির।

মারাত্বক লাইনগুলো

২১

এ টি এম কাদের's picture


লিখিনি তোমায় নিয়ে কবিতা কভু
রচিনি গানের কলি আঁকিনি ছবি,
হৃদয়ের একান্ত গোপন কোঠরে
যত কথা যত ব্যথা ঘুম পাড়িয়েছি ।

২২

এ টি এম কাদের's picture


লিখিনি তোমায় নিয়ে কবিতা কভু
রচিনি গানের কলি আঁকিনি ছবি,
হৃদয়ের একান্ত গোপন কোঠরে
যত কথা যত ব্যথা ঘুম পাড়িয়েছি ।

২৩

সাহাদাত উদরাজী's picture


পৃথিবীর সব দেবদাসদের জন্য! বাঁচলাম, আমি দেবদাস না! ফাটাবাস!

২৪

তানবীরা's picture


Big smile

২৫

সাঈদ's picture


কবিতা পড়ে গভীর ভাবের ইমো দিতে চেয়েছিলাম , পাইলাম না ।

২৬

তানবীরা's picture


গভীর একটা ধন্যবাদ দিতে চাইলাম, পারলাম না Sad

২৭

জেবীন's picture


তারপরো কেনো যেনো মাঝে মাঝে ইচ্ছে করে
দীর্ঘ এই নীরবতাকে ভেঙে দিয়ে কিছু উপহার পাঠাতে।
কেমন আছো জানতে আর জানাতে ইচ্ছে করে।

---  কথা সত্য!!... 

দারুন হইছে

২৮

তানবীরা's picture


থ্যাঙ্কু আপুমনি Big smile

২৯

আশফাকুর র's picture


তানবীরাপু বেশ কিছু লাইন ভাল লাগল। ধন্যবাদ

৩০

তানবীরা's picture


ভালো লেগেছে জেনে আমারো ভালো লাগলো ধন্যবাদ

৩১

জ্যোতি's picture


আমি এখন আর জানি না তোমার প্রিয় রঙ কোনটা
জানি না কোন গান এখন উতলা করে তোমায়
কোন বইটা পড়ে অনেক ভাবো তুমি
যেমন তুমিও জানো না আমার প্রিয় কবি কে এখন
কোন সিনেমা দেখে আমি হাঁপুস নয়নে কেঁদেছি
মাঝরাতে ঘুম ভেঙে গিয়ে আর ঘুম না এলে
বুক ব্যাথা করলে কি কি সব ভাবি।

তাতাপু রক্স। Big Hug

৩২

তানবীরা's picture


তুমিও রক্স জয়িতা Love Love Love

৩৩

নুশেরা's picture


বাহ্ বাহ্!
আহা, আহা!!

৩৪

তানবীরা's picture


আদাব আর সে জী Wink

৩৫

হাসান রায়হান's picture


হাফ সেঞ্চুরি আপ। Applause

৩৬

তানবীরা's picture


Hat Grade

৩৭

সামিয়া 's picture


পড়তেছি

Applause Applause

৩৮

তানবীরা's picture


Love Love Love

৩৯

মীর's picture


অসাধারণ একটা কবিতা। আজকাল ব্লগে সমৃদ্ধ সমৃদ্ধ অনেক লেখাই পাওয়া যায়। সাহিত্যচর্চার চমৎকার একটা মাধ্যম হয়ে উঠেছে এটা। হয়তো বই আজীবনই থাকবে, কেননা সেটা একটা চিরসবুজ বিষয়। কিন্তু পাশাপাশি ব্লগও একটা গুরুত্বপূর্ণ জায়গা করে নেবে একদিন।

৪০

তানবীরা's picture


Thinking Thinking Thinking

৪১

কামরুল হাসান রাজন's picture


"আমি এখন আর জানি না তোমার প্রিয় রঙ কোনটা
জানি না কোন গান এখন উতলা করে তোমায়
কোন বইটা পড়ে অনেক ভাবো তুমি
যেমন তুমিও জানো না আমার প্রিয় কবি কে এখন
কোন সিনেমা দেখে আমি হাঁপুস নয়নে কেঁদেছি
মাঝরাতে ঘুম ভেঙে গিয়ে আর ঘুম না এলে
বুক ব্যাথা করলে কি কি সব ভাবি।"

খুব ভাল লাগল এই লাইন কয়টা Smile

৪২

তানবীরা's picture


আপনার ভালো লেগেছে জেনে আমিও সম্মানিতবোধ করছি Big smile

৪৩

বিষণ্ণ বাউন্ডুলে's picture


' কি লিখছেন বস্! মাথা তো পুরা আউলায় গেল। কি অসাধারণ!' (কপিরাইট মীর)

৪৪

একজন মায়াবতী's picture


' কি লিখছেন বস্! মাথা তো পুরা আউলায় গেল। কি অসাধারণ!' (কপিরাইট মীর) Smile

৪৫

নাজমুল হুদা's picture


চমৎকার ।
আগে কেন পড়িনি?

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

তানবীরা's picture

নিজের সম্পর্কে

It is not the cloth I’m wearing …………it is the style I’m carrying

http://ratjagapakhi.blogspot.com/