ইউজার লগইন

আমার প্রবচনগুচ্ছ

আমার লেখা ৭০ টা প্রবচনের মধ্য থেকে টোকাইয়া-টাকাইয়া ৬০ টা প্রবচন সংকলন এখানে প্রকাশ করলাম। কেমন হল জানাবেন।

১। প্রেম প্রতিক্ষা হল বৃষ্টি প্রতিক্ষার মত। গ্রীষ্মের খর রৌদ্রে শুকিয়ে কাঠ হয়ে গেলেও আপনি এক ফোঁটা বৃষ্টি পাবেন না। অথচ বর্ষাকালে অতিবৃষ্টিতে আপনার জীবন হবে বিপর্যস্ত।
২। যে প্রেমিক বন্ধুর ডাকে প্রেমিকার পাশ থেকে উঠে চলে যায়, তাকে ছেড়ে দেয়া ওয়াজিব। আর যে বন্ধু প্রেমিকার ডাকে বন্ধুর পাশ থেকে উঠে চলে যায়, তাকে ছেড়ে দেয়া ফরযে আইন।
৩। আপনার প্রেমিকা যদি সন্দেহের বশে আপনাকে প্রশ্ন করে পর্যুদস্ত করে তোলে তাহলে বুঝবেন সে একজন সাবেক বারবণিতা। কারণ, পোড় খাওয়া গরু সিঁদুরে মেঘ দেখলেই ডরায়।
৪। কারও মাথায় আকাশ ভেঙে পড়লে কবি তাকে সান্ত্বনা দেয়। অথচ কবি যখন বিপদে পড়ে তখন তার কবিত্ব শুধু খসেই যায় না, রীতিমত উর্ধ্বপাতিত হয়ে উড়ে যায় ;যেমনটা হয়েছে আমার ক্ষেত্রে।
৫। যৌনতার চরম শিখরে বসেও যদি সে আপনার দিকে লোলুপ দৃষ্টির বদলে প্রেমময় দৃষ্টিতে তাকায়, তবে বুঝে নেবেন সে আপনাকে সত্যিই ভালবাসে। অন্যথায় আমি দুঃখিত।
৬। জাতীয় পতাকা ছেঁড়া মানেই যেমন দেশ পরাধীন নয়, ঠিক তেমনি সতীচ্ছদ পর্দা ছেঁড়া মানেই তুমি অসতী নও।
৭। আমাকে এক ছোট ভাই জিজ্ঞেস করল, 'দুমুখো সাপ' মানে কি? উত্তরে আমি বললাম, এরশাদ!
৮। যৌক্তিক গালি শুনেও সুখ, অযৌক্তিক মিষ্টি কথাও কানে লাগে!
৯। আলো ছড়ানোর আগে নিজে আলোকিত হওয়া দরকার!!!
১০। বর্তমান পৃথিবী টিস্যু কালচারে যতটা না উন্নতি করেছে তার চেয়েও বেশি উন্নতি করেছে কনডম কালচারে।
১১। ব্যাচেলর পুরুষেরা বউয়ের আশায় চাতক পাখির মত চেয়ে থাকে। আসলে এরা দাঁত থাকতে দাঁতের মর্যাদা বোঝে না।
১২। পরের অনিষ্ট করে যেই জন,
সেইজন সেবিছে ঈশ্বর। তদ্রূপ জীবে প্রেম করে যেইজন, নিজের অনিষ্ট বীজ করে সে বপন।
১৩। ভালবাসা হল তাই যেখানে শুধুই ক্রিয়া থাকে। আর প্রেম হল
তাই যেখানে ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া উভয়ই বর্তমান। আকর্ষণ
একটি ভিন্ন ধারণা। ইহা অনেকের প্রতিই থাকতে পারে।
১৪। এই প্রথম আমার চারদিকে চোখ মেলে তাকালাম। দেখলাম, আমার পৃথিবীটা মোটেও গোল নয়, পুরোই ট্রাপিজিয়াম!
১৫। শৃঙ্খলে শৃঙ্খলিত শৃঙ্খলময় শৃঙ্খল।
১৬। প্রেম হাইজেনবার্গের অনিশ্চয়তাবাদ নীতি মেনে চলে। প্রেম যখন নিশ্চিত, বিয়ে তখন অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। বিয়ে যখন নিশ্চিত, প্রেম তখন অনিশ্চিত হয়ে পড়ে।
১৭। বাংলাদেশের বিভিন্ন ইসলামি আন্দোলনে আন্দোলনরত আন্দোলনকারীরা নিজেরাই জানে না তারা কেন আন্দোলন করে।
১৮। শেখ হাসিনা সাহেবা মানুষকে হাইকোর্ট দেখাচ্ছেন আর শফী সাহেব দেখাচ্ছেন সুপ্রিমকোর্ট!
১৯। আপনার প্রেমিকা যদি বরিশালের হয় তবে হেলমেট পড়ুন, নোয়াখালীর হলে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করুন। আর চাঁদপুরের হয়ে থাকলে আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত। কারণ সন্দেহবাতিকতা দূর করার কোন দাওয়াই আমার জানা নেই।
২০। ফেসবুকে যারা ঈমানী দায়িত্ব, মানবিক দায়িত্ব, দেশপ্রেমী দায়িত্বের দোহাই দিয়ে লাইক ভিক্ষা করে তাদের উৎপত্তিস্থলের কথা চিন্তা করলে আমার মনে কেন যেন মুঘল হেরেমের ছবি ভেসে ওঠে।
২১। যে মেয়ে আপনাকে সন্দেহ করে, তাকে ছেড়ে দেয়া আপনার উচিত নয়, অবশ্য পালনীয় কর্তব্য।
২২। মানবাধিকার চরমভাবে লঙ্ঘিত হয় নীলছবিতে। অথচ এ নিয়ে মানবাধিকার সংগঠন গুলোর কোন মাথাব্যথা নেই। নিজেরাই স্পন্সর কিনা!
২৩। ধরা খাইলে যৌনলীলা, না খাইলে রামলীলা!
২৪। স্কুলের অধিকাংশ ধর্ষণই হয় মেয়েটির স্বেচ্ছায়। কিছু বুঝলেন কি?
২৫। খালি কলসি বাজে বেশি। এর মানে ব্যর্থরাই প্রতিবাদ করতে জানে, সফলেরা স্বার্থান্বেষী।
২৬। যৌনাচারের প্রথমভাগে পুরুষরা ভয়ংকর, শেষভাগে নারীরা।
২৭। অতি সম্প্রতি হিজাব আর বোরকাও ফ্যাশনের তালিকায় স্থান পেয়েছে।
২৮। নজরুল-রবীন্দ্রের সোনার বাংলার খোঁজ পেতে চাইলে বিটিভির সংবাদ দেখুন।
২৯। শিশুকালে অষ্টাদশীদের চুমুতে প্রাণ ওষ্ঠাগত ছিল। আর এখন চুমুর আশায় চাতক পাখির মত চেয়ে থাকতে থাকতে প্রাণ ওষ্ঠাগত।
৩০। এখনও তোমার চুলের ঘ্রাণ পাই। কি তেল মেখেছিলে?
৩১) বসুন্ধরায় গেলে আমি দ্বিধায় পড়ে যাই। প্রপোজ করব কাকে? মেয়েকে না মা'কে?
৩২) স্বপ্ন দেখা অধিকার, দুঃস্বপ্ন দেখা অপরাধ!
৩৩) সত্য কথা বলা এদেশে গালিগালাজ করার মত।
৩৪) মুক্তিযোদ্ধা হওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় হল বঙ্গবাজার থেকে একটা মুজিবকোট কেনা।
৩৫) আমার দেখা সবচেয়ে ভয়ংকর মানব প্রজাতি হল যুক্তিবাদীরা। আমি নিজেই এর অন্তর্গত।
৩৬) বিতর্ক হল এমন কিছু যা আপনা আপনি থামতে চায় না, জোর করে থামিয়ে দিতে হয়।
৩৭) আগে মেয়েরা স্বামী হিসেবে পছন্দ করত ডাক্তার আর ইঞ্জিনিয়ারদের। আর এখন করে ব্লগার আর ফ্রিল্যান্সারদের।
৩৮) অভিজ্ঞ মেয়েরা প্রতিক্রিয়াশীল, অনভিজ্ঞরা নিষ্ক্রিয়। এটা বাসর রাতেও সত্য।
৩৯) আমার প্রশ্ন : ওর বাবা কি সত্যিই যুদ্ধ করেছিল? এক বন্ধুর উত্তর : আরে না। মুক্তিযোদ্ধাদের বদনা টানত!
৪০) আজও তোমার রক্তিমাভ ঠোঁট যুগলের উষ্ণতা অনুভব করি। কি লিপস্টিক দিয়েছিলে গো?
৪১) দেশ ধীরে ধীরে উন্নত ও সুডৌল হচ্ছে। বোঝা গেল কিছু?
৪২) পিছনে বসিয়া অনেকেই আশার বাণী শুনাইতে পারে কিন্তু রণক্ষেত্রে ইহাদের খুঁজিয়া পাওয়া যায় না!
৪৩) ব্যর্থতাকালীন সহানুভূতি কাঁটা ঘায়ে নুনের ছিটা।
৪৪) আমি প্রেমে পড়েছি একবার কিন্ত প্রেম আমার উপরে পড়েছে বহুবার।
৪৫) আবার ঘুরে দাঁড়াতে চাই, কেউ একটু ভালবাসা দেবে?
৪৬) কারও অতীত নিয়ে টানাটানি করা থেকে সন্দেহের উত্থান। আর সন্দেহ থেকে শুরু হয় ভালবাসার অবক্ষয়।
৪৭) সন্দেহবাতিক প্রেমিকা প্রেমের জন্য অভিশাপ।
৪৮) যাদের ভালবাসা সতীচ্ছদ পর্দার সাথে সম্পর্কযুক্ত, তারা লম্পট।
৪৯) সুন্দর দেহের চেয়ে কি সুন্দর মন দামি? এর উত্তর ফাঁকা আওয়াজ। কারণ দুইটা জিনিস আলাদা।
৫০) যে সম্পর্ক যত দ্রুত সৃষ্টি হয়, সে সম্পর্ক তত দ্রুত ভেঙে যায়।
৫১) এরশাদ সাহেবের সবচেয়ে বড় গুণ : তার মধ্যে 'পাছে লোকে কিছু বলে' নামক সমস্যাটি নেই।
৫২) ' দেশ আজ বিশ্ববেহায়ার খপ্পরে ' - এটা যে শাশ্বত বাণী তা আজকে উপলব্ধি করলাম।
৫৩) আমি মাঝে মাঝে ভেবে পাইনা, রাজনীতি থেকে দুর্নীতি এসেছে নাকি দুর্নীতি থেকে রাজনীতি এসেছে।
৫৪) প্রকৃত রাজাকার হল তারা যারা বিশ্বকাপ ফুটবলের সময় খেলুড়ে দেশগুলোর পতাকা দিয়ে বাংলাদেশ ঢেকে ফেলে অথচ সারাজীবনে একবারও বাংলাদেশের পতাকা টাঙিয়ে দেখেননা।
৫৫) আমাদের দেশে গণতন্ত্রের ছদ্মবেশে রাজতন্ত্রই বিরাজ করছে।
৫৬) যখন পূর্বপুরুষদের বীরত্বকাব্য শুনি তখন গর্ব হয়। আর তাদের অত্যাচারের কাহিনী শুনে পরিচয় দিতে লজ্জা হয়।
৫৭) এখন সময় - সফল প্রেমের ব্যর্থ কবিতা লেখার।
৫৮) সে যদি প্রদীপ হয়ে থাকে, তবে তুমি ফ্লাডলাইট।
৫৯) তোমার রঙিন ঠোঁটে সাতরঙা চুমু দিতে চাই। একটু সুযোগ দেবে কি?
৬০) এই মেয়ে, আমাকে সত্যিই ভালবাস তো? ১। প্রেম প্রতিক্ষা হল বৃষ্টি প্রতিক্ষার মত। গ্রীষ্মের খর রৌদ্রে শুকিয়ে কাঠ হয়ে গেলেও আপনি এক ফোঁটা বৃষ্টি পাবেন না। অথচ বর্ষাকালে অতিবৃষ্টিতে আপনার জীবন হবে বিপর্যস্ত।
২। যে প্রেমিক বন্ধুর ডাকে প্রেমিকার পাশ থেকে উঠে চলে যায়, তাকে ছেড়ে দেয়া ওয়াজিব। আর যে বন্ধু প্রেমিকার ডাকে বন্ধুর পাশ থেকে উঠে চলে যায়, তাকে ছেড়ে দেয়া ফরযে আইন।
৩। আপনার প্রেমিকা যদি সন্দেহের বশে আপনাকে প্রশ্ন করে পর্যুদস্ত করে তোলে তাহলে বুঝবেন সে একজন সাবেক বারবণিতা। কারণ, পোড় খাওয়া গরু সিঁদুরে মেঘ দেখলেই ডরায়।
৪। কারও মাথায় আকাশ ভেঙে পড়লে কবি তাকে সান্ত্বনা দেয়। অথচ কবি যখন বিপদে পড়ে তখন তার কবিত্ব শুধু খসেই যায় না, রীতিমত উর্ধ্বপাতিত হয়ে উড়ে যায় ;যেমনটা হয়েছে আমার ক্ষেত্রে।
৫। যৌনতার চরম শিখরে বসেও যদি সে আপনার দিকে লোলুপ দৃষ্টির বদলে প্রেমময় দৃষ্টিতে তাকায়, তবে বুঝে নেবেন সে আপনাকে সত্যিই ভালবাসে। অন্যথায় আমি দুঃখিত।
৬। জাতীয় পতাকা ছেঁড়া মানেই যেমন দেশ পরাধীন নয়, ঠিক তেমনি সতীচ্ছদ পর্দা ছেঁড়া মানেই তুমি অসতী নও।
৭। আমাকে এক ছোট ভাই জিজ্ঞেস করল, 'দুমুখো সাপ' মানে কি? উত্তরে আমি বললাম, এরশাদ!
৮। যৌক্তিক গালি শুনেও সুখ, অযৌক্তিক মিষ্টি কথাও কানে লাগে!
৯। আলো ছড়ানোর আগে নিজে আলোকিত হওয়া দরকার!!!
১০। বর্তমান পৃথিবী টিস্যু কালচারে যতটা না উন্নতি করেছে তার চেয়েও বেশি উন্নতি করেছে কনডম কালচারে।
১১। ব্যাচেলর পুরুষেরা বউয়ের আশায় চাতক পাখির মত চেয়ে থাকে। আসলে এরা দাঁত থাকতে দাঁতের মর্যাদা বোঝে না।
১২। পরের অনিষ্ট করে যেই জন,
সেইজন সেবিছে ঈশ্বর। তদ্রূপ জীবে প্রেম করে যেইজন, নিজের অনিষ্ট বীজ করে সে বপন।
১৩। ভালবাসা হল তাই যেখানে শুধুই ক্রিয়া থাকে। আর প্রেম হল
তাই যেখানে ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া উভয়ই বর্তমান। আকর্ষণ
একটি ভিন্ন ধারণা। ইহা অনেকের প্রতিই থাকতে পারে।
১৪। এই প্রথম আমার চারদিকে চোখ মেলে তাকালাম। দেখলাম, আমার পৃথিবীটা মোটেও গোল নয়, পুরোই ট্রাপিজিয়াম!
১৫। শৃঙ্খলে শৃঙ্খলিত শৃঙ্খলময় শৃঙ্খল।
১৬। প্রেম হাইজেনবার্গের অনিশ্চয়তাবাদ নীতি মেনে চলে। প্রেম যখন নিশ্চিত, বিয়ে তখন অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। বিয়ে যখন নিশ্চিত, প্রেম তখন অনিশ্চিত হয়ে পড়ে।
১৭। বাংলাদেশের বিভিন্ন ইসলামি আন্দোলনে আন্দোলনরত আন্দোলনকারীরা নিজেরাই জানে না তারা কেন আন্দোলন করে।
১৮। শেখ হাসিনা সাহেবা মানুষকে হাইকোর্ট দেখাচ্ছেন আর শফী সাহেব দেখাচ্ছেন সুপ্রিমকোর্ট!
১৯। আপনার প্রেমিকা যদি বরিশালের হয় তবে হেলমেট পড়ুন, নোয়াখালীর হলে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করুন। আর চাঁদপুরের হয়ে থাকলে আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত। কারণ সন্দেহবাতিকতা দূর করার কোন দাওয়াই আমার জানা নেই।
২০। ফেসবুকে যারা ঈমানী দায়িত্ব, মানবিক দায়িত্ব, দেশপ্রেমী দায়িত্বের দোহাই দিয়ে লাইক ভিক্ষা করে তাদের উৎপত্তিস্থলের কথা চিন্তা করলে আমার মনে কেন যেন মুঘল হেরেমের ছবি ভেসে ওঠে।
২১। যে মেয়ে আপনাকে সন্দেহ করে, তাকে ছেড়ে দেয়া আপনার উচিত নয়, অবশ্য পালনীয় কর্তব্য।
২২। মানবাধিকার চরমভাবে লঙ্ঘিত হয় নীলছবিতে। অথচ এ নিয়ে মানবাধিকার সংগঠন গুলোর কোন মাথাব্যথা নেই। নিজেরাই স্পন্সর কিনা!
২৩। ধরা খাইলে যৌনলীলা, না খাইলে রামলীলা!
২৪। স্কুলের অধিকাংশ ধর্ষণই হয় মেয়েটির স্বেচ্ছায়। কিছু বুঝলেন কি?
২৫। খালি কলসি বাজে বেশি। এর মানে ব্যর্থরাই প্রতিবাদ করতে জানে, সফলেরা স্বার্থান্বেষী।
২৬। যৌনাচারের প্রথমভাগে পুরুষরা ভয়ংকর, শেষভাগে নারীরা।
২৭। অতি সম্প্রতি হিজাব আর বোরকাও ফ্যাশনের তালিকায় স্থান পেয়েছে।
২৮। নজরুল-রবীন্দ্রের সোনার বাংলার খোঁজ পেতে চাইলে বিটিভির সংবাদ দেখুন।
২৯। শিশুকালে অষ্টাদশীদের চুমুতে প্রাণ ওষ্ঠাগত ছিল। আর এখন চুমুর আশায় চাতক পাখির মত চেয়ে থাকতে থাকতে প্রাণ ওষ্ঠাগত।
৩০। এখনও তোমার চুলের ঘ্রাণ পাই। কি তেল মেখেছিলে?
৩১) বসুন্ধরায় গেলে আমি দ্বিধায় পড়ে যাই। প্রপোজ করব কাকে? মেয়েকে না মা'কে?
৩২) স্বপ্ন দেখা অধিকার, দুঃস্বপ্ন দেখা অপরাধ!
৩৩) সত্য কথা বলা এদেশে গালিগালাজ করার মত।
৩৪) মুক্তিযোদ্ধা হওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় হল বঙ্গবাজার থেকে একটা মুজিবকোট কেনা।
৩৫) আমার দেখা সবচেয়ে ভয়ংকর মানব প্রজাতি হল যুক্তিবাদীরা। আমি নিজেই এর অন্তর্গত।
৩৬) বিতর্ক হল এমন কিছু যা আপনা আপনি থামতে চায় না, জোর করে থামিয়ে দিতে হয়।
৩৭) আগে মেয়েরা স্বামী হিসেবে পছন্দ করত ডাক্তার আর ইঞ্জিনিয়ারদের। আর এখন করে ব্লগার আর ফ্রিল্যান্সারদের।
৩৮) অভিজ্ঞ মেয়েরা প্রতিক্রিয়াশীল, অনভিজ্ঞরা নিষ্ক্রিয়। এটা বাসর রাতেও সত্য।
৩৯) আমার প্রশ্ন : ওর বাবা কি সত্যিই যুদ্ধ করেছিল? এক বন্ধুর উত্তর : আরে না। মুক্তিযোদ্ধাদের বদনা টানত!
৪০) আজও তোমার রক্তিমাভ ঠোঁট যুগলের উষ্ণতা অনুভব করি। কি লিপস্টিক দিয়েছিলে গো?
৪১) দেশ ধীরে ধীরে উন্নত ও সুডৌল হচ্ছে। বোঝা গেল কিছু?
৪২) পিছনে বসিয়া অনেকেই আশার বাণী শুনাইতে পারে কিন্তু রণক্ষেত্রে ইহাদের খুঁজিয়া পাওয়া যায় না!
৪৩) ব্যর্থতাকালীন সহানুভূতি কাঁটা ঘায়ে নুনের ছিটা।
৪৪) আমি প্রেমে পড়েছি একবার কিন্ত প্রেম আমার উপরে পড়েছে বহুবার।
৪৫) আবার ঘুরে দাঁড়াতে চাই, কেউ একটু ভালবাসা দেবে?
৪৬) কারও অতীত নিয়ে টানাটানি করা থেকে সন্দেহের উত্থান। আর সন্দেহ থেকে শুরু হয় ভালবাসার অবক্ষয়।
৪৭) সন্দেহবাতিক প্রেমিকা প্রেমের জন্য অভিশাপ।
৪৮) যাদের ভালবাসা সতীচ্ছদ পর্দার সাথে সম্পর্কযুক্ত, তারা লম্পট।
৪৯) সুন্দর দেহের চেয়ে কি সুন্দর মন দামি? এর উত্তর ফাঁকা আওয়াজ। কারণ দুইটা জিনিস আলাদা।
৫০) যে সম্পর্ক যত দ্রুত সৃষ্টি হয়, সে সম্পর্ক তত দ্রুত ভেঙে যায়।
৫১) এরশাদ সাহেবের সবচেয়ে বড় গুণ : তার মধ্যে 'পাছে লোকে কিছু বলে' নামক সমস্যাটি নেই।
৫২) ' দেশ আজ বিশ্ববেহায়ার খপ্পরে ' - এটা যে শাশ্বত বাণী তা আজকে উপলব্ধি করলাম।
৫৩) আমি মাঝে মাঝে ভেবে পাইনা, রাজনীতি থেকে দুর্নীতি এসেছে নাকি দুর্নীতি থেকে রাজনীতি এসেছে।
৫৪) প্রকৃত রাজাকার হল তারা যারা বিশ্বকাপ ফুটবলের সময় খেলুড়ে দেশগুলোর পতাকা দিয়ে বাংলাদেশ ঢেকে ফেলে অথচ সারাজীবনে একবারও বাংলাদেশের পতাকা টাঙিয়ে দেখেননা।
৫৫) আমাদের দেশে গণতন্ত্রের ছদ্মবেশে রাজতন্ত্রই বিরাজ করছে।
৫৬) যখন পূর্বপুরুষদের বীরত্বকাব্য শুনি তখন গর্ব হয়। আর তাদের অত্যাচারের কাহিনী শুনে পরিচয় দিতে লজ্জা হয়।
৫৭) এখন সময় - সফল প্রেমের ব্যর্থ কবিতা লেখার।
৫৮) সে যদি প্রদীপ হয়ে থাকে, তবে তুমি ফ্লাডলাইট।
৫৯) তোমার রঙিন ঠোঁটে সাতরঙা চুমু দিতে চাই। একটু সুযোগ দেবে কি?
৬০) এই মেয়ে, আমাকে সত্যিই ভালবাস তো?

বাকি ১০ টা যেন কোথায় হারিয়ে গেছে! Smile

পোস্টটি ৫ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

মডারেটর's picture


গ. "আমরা বন্ধু" তে শুধু নতুন লেখাই প্রকাশিত হবে। পুরনো লেখা রিপোস্ট করা যাবে না। অন্য কোনো কম্যুনিটি ব্লগে প্রকাশিত লেখা এবিতে প্রকাশ নিষিদ্ধ। এবিতে প্রকাশিত কোন লেখা ২৪ ঘন্টার মধ্যে অন্য কোনো কমিউনিটি ব্লগে প্রকাশ করা যাবে না। ব্যক্তিগত ব্লগ এবং পত্রিকা এই নিয়মের আওতার বাইরে।

উক্ত কারনে আপনার লেখাটি প্রথম পাতা থেকে সরানো হইলো! ব্লগ নীতিমালা মেনে লেখালেখি করার বিনীত অনুরোধ থাকলো!

অতৃপ্ত কোডার's picture


ধন্যবাদ। এটা একদিক থেকে পুরনো লেখা নয় , সংকলন টাইপের কিছু একটা। Wink আমি নীতিমালার প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকার চেষ্টা করব।

তানবীরা's picture


অনেক গিয়ানের কথা একসাথে Laughing out loud

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

অতৃপ্ত কোডার's picture

নিজের সম্পর্কে

হাই! আমি মুহম্মদ মাকসুদুর রহমান খান। বর্তমানে আমি পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিষয়ে পড়াশুনা করছি।
আমি ২০০৯ সাল থেকে ব্লগিং, ২০১১ সাল থেকে ফোরামিং এবং ২০১২ সাল থেকে আউটসোর্সিং এর সাথে যুক্ত রয়েছি। ২০১৩ সাল থেকে আমি বিভিন্ন মাসিক পত্রিকা ও অনলাইন পত্রিকায় লেখালেখি করছি। আমি মূলত একজন কোডার এবং এটাই আমার প্রধান পরিচয় বলে আমি মনে করি।
বিশ্বজোড়া পাঠশালা মোর, আমি সব কোডারের ছাত্র। নানান ভাবে নতুন কোড, শিখছি দিবারাত্র।
ধন্যবাদ!