ইউজার লগইন

কে বলে - কাল রাতে জোছনা ছিল না ?

রজনীর শুরু - ঘড়ির কাঁটা মাত্র ১১' র ঘর পার হযেছে - হলুদ পাঞ্জাবি পরা এক যুবক তখন মগবাজার চৌরাস্তার কাছে - অদ্ভুতুড়ে তার জীবনদর্শন - জগতের অপার রহস্য তাকে নিয়ত আচ্ছন্ন করে রাখে - আধ্যাতিকতার প্রশ্নে দীর্ঘদিন থেকেই সে বিতর্কিত - আজকের রাতটা কেমন যেন - যুবকের প্রবল ইনটুইশন আজ কাজ করছে না - তার জানা নেই - কিছুক্ষণের মাঝেই পৃথিবীর গভীরতম রহস্য তাকে গ্রাস করবে - এগারোটা বিশ - হুট করেই যেন যুবকের চারপাশ বায়ুশুন্য হয়ে গেল - অত:পর তীব্র অসহনীয় শ্বাসকষ্ট নিয়ে রাস্তায় হাঁটু গেড়ে বসা - ভিতরে এক বোধ - এই তাহলে মৃত্যু - এত যন্ত্রণার মাঝেও আকাশের দিকে তাকাতে তার ভুল হয়নি - খুঁজছে সে চাঁদ - খুঁজছে জোছনা - নেই - আজ বুঝি অমাবস্যা - মৃত্যু তাহলে আঁধারের ঘাতক - ক্ষতি নেই - যার হৃদয় ভর্তি জোছনা - পঞ্জিকায় নয় - প্রতিটি রাতেই যে তার পূর্ণিমা.

ঐ মুহুর্তেই - কযেক কিলোমিটার দুরে একটি বাড়ি - তীক্ষ্ণধী এক নি:সঙ্গ অধ্যাপক রাত জাগছেন - হাতে কার্ল সেগানের একটি মাস্টারপীস - অসাধারণ লিখার বুনট - লেখক প্রকৃতিকে বিশ্লেষণ করতে গিয়ে মৃত্যু প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন - অধ্যাপক মগ্ন বইয়ের পাতায় - তিনি জানেন না - বইয়ের পাতা ছেড়ে মৃত্যু হাজির হয়েছে তার শ্রীহীন ঘরে - তীব্র ব্যথাটা তার মনোসংযোগ কেড়ে নিল - বুদ্ধিমান মানুষটি মুহুর্তেই বুঝে ফেললেন - এই ব্যথা অপার্থিব - বইটা খসে পড়ছে তার হাত থেকে - দু:সহ যন্ত্রণার মাঝেও তিনি সহজ ভাবে মৃত্যুকে গ্রহণ করলেন - কিন্তু সেই সাথে -শেষ সময়ে কে জানে কেন - অনেকটা ছেলেমানুষের মতই - স্বভাববিরুদ্ধভাবে তার মনে হলো - আজকের রাতটা পূর্ণিমা হলে মন্দ হত না.

করাল মুহূর্তটি তখন হাজির হয়েছে রাজধানীর অভিজাত পাড়ার একটি শয়নকক্ষে - মেয়েটি তখনও ঘুমায়নি - বিছানায় উপুড় হয়ে লিখছে কিছু - সম্ভবত প্রিয়তমের জন্য কোনো চিঠি - তার জানা নেই - চিঠিটা সম্পন্ন হবে না - জানা নেই - চিঠির প্রেরক প্রাপক দুজনই হারিয়ে যাচ্ছে চিরতরে - পরেরদিন সকালে আমরা মেয়েটির প্রাণহীন দেহ পাব - ঐ বিছানাতে ঐ ভঙ্গিতেই - আর পাব অসমাপ্ত একটি চিঠি - যেখানে একটি মাত্র শব্দ লিখা - 'প্রিয়তমেষু' - আমরা যা জানব না ত়া হচ্ছে - এই মেয়েটিও শেষ সময়ে জোছনা দেখতে চেয়েছিল - কিন্তু একা নয়.

ঐ একই সময় - অনেকদূরের এক সমুদ্রসৈকত - প্রায়ান্ধ এক যুবক বিশাল জলাধারকে পায়ে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে - তার চর্মচক্ষু অচলপ্রায় - পূর্ণিমা অমাবস্যার পার্থক্য ধরতে পারে না - কিন্তু অন্তর্লোকে তার চিরযৌবনা জোছনার চাদর - কেউ জানে না - এই যুবকটিও আজ ভেসে যাবে জলাধারে - হয়ত কাল তার দেহখানি গিয়ে ঠেকবে অন্য কোনো বেলাতটে

নিউইয়র্কের একটি হাসপাতাল - শয্যাশায়ী মানুষটির অন্তিম মুহূর্ত উপস্থিত - যেতে তার আপত্তি নেই - কিন্তু দাবী আছে - না - খুব দামী কিছু নয় - আবার অমূল্য ও বটে - দাবী শুধুই জোছনার - চাঁদনী পসর জোছনার - কিন্তু পূর্ণিমা যে বহুদূর - অমাবস্যার লগ্ন এখন - জোছনা কোথায় - যে মানুষটি সারাটা জীবন জোছনা স্নান করেছে - আজ কি তবে আঁধারেই তার অন্তিম যাত্রা শুরু হবে - আমি বিশ্বাস করি তেমনটি হয়নি - হতে পারে না - মানুষটা তো ছিলেন স্বপ্নভূক - ছিলেন চন্দ্রাহত - লক্ষ লক্ষ হৃদয়ে স্বপ্ন ছড়াতেন - জোছনা মাখাতেন - আঁধার কি তাকে গ্রাস করতে পারে - তিনি তার সৃষ্ট চরিত্র 'নি' এর মতই - একজন স্বপ্নদ্রষ্টা - আমি বিশ্বাস করি - যাবার সময় তিনি জোছনার মাঝেই ছিলেন - একটু যদি চোখ বন্ধ করি - আমি একটি নীপবন দেখতে পাই - দেখতে পাই ঝুম বৃষ্টি - অদ্ভুত সব কদম ফুল - দেখতে পাই পৃথিবী জোছনায় ভেসে যাচ্ছে - দরদী এক গায়ক দরাজ গলায় স্রষ্টার কাছে করুণা ভিক্ষা চাইছে - 'তার মৃত্যু যেন চাঁদনী পসর রাতে হয়' - সেই পৃথিবী ভরে আছে স্বপ্ন পাগল হলুদ সব অবয়বে - হুমায়ুন বোধহয় তাদেরই একজন - জোছনার জগত থেকেই তিনি এসেছিলেন - জোছনার মাঝেই কাটিয়েছেন জীবন - প্রার্থনা রইলো সেই সর্বোচ্চ সত্তা সুমহান আল্লাহ'র কাছে - জোছনার জগতেই যেন তার প্রত্যাবর্তন হয়.

পোস্টটি ২ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

অনিমেষ রহমান's picture


ভালো থাকুন হুমায়ুন।

রায়েহাত শুভ's picture


ভাবলেই কেমন জানি লাগছে, হিমু-মিসির আলি-শুভ্র-রূপা-জরী-পরী এদের কাউকে আর কোনো নতুন গল্পে দেখবো না Sad

নিভৃত স্বপ্নচারী's picture


অন্যভুবনে শান্তিতে থাকুন তিনি !

মেসবাহ য়াযাদ's picture


অন্যভুবনে শান্তিতে থাকুন তিনি !

গ্রিফিন's picture


অন্যভুবনে শান্তিতে থাকুন তিনি !

বিষণ্ণ বাউন্ডুলে's picture


ভাবলেই কেমন জানি লাগছে, হিমু-মিসির আলি-শুভ্র-রূপা-জরী-পরী এদের কাউকে আর কোনো নতুন গল্পে দেখবো না!

অন্যভুবনে শান্তিতে থাকুন তিনি !

তানবীরা's picture


ভালো থাকুন হুমায়ুন।

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

হাসান আদনান's picture

নিজের সম্পর্কে

কিছু মানুষ জন্মায় - একাকিত্বের বীজমন্ত্র নিয়ে - জীবন তাদেরকে খেলায় - নাকি তারা জীবন কে নিয়ে খেলে - বোঝা দায় - সম্পর্ক - সেটা বন্ধুত্বের হোক - হোক ভালবাসার কিংবা রক্তের - তারা এড়িয়ে চলে - কিংবা কে জানে - বন্ধনে জড়ানোর যোগ্যতা হয়ত প্রকৃতি তাদের কে দেয়নি - অর্থহীন জীবন - মাঝরাতে দুঃস্বপ্ন দেখে জেগে ওঠা - তারপর অঘুমো বিভীষিকাময় মুহূর্ত গুলো - তবু কাউকে ডাকা নয় - ডাকার জন্য যে প্রণোদনা লাগে তারা তা হারিয়ে ফেলেছে - শুধু ভোরের প্রতীক্ষা - যদিও জানে - ভোর আসবে না - এসব মানুষের জীবনে ভোর আসেনা- আসতে নেই - প্রসারিত কোনো হাতেই এরা হাত রাখে না - বিশ্বাস এদের নড়ে গেছে শুরুতেই - যেন সিজোফ্রেনিয়ার রোগী - এক বিচিত্র জগৎ - কোনো বন্ধন নেই - ভুল হলো- একটি বন্ধন আছে - থাকে - বিধাতার সাথে - সে বন্ধনে কখনো প্রার্থনা থাকে - কখনো ঘৃণা - কখনো অসম লড়াই - আর কখনো সীমাহীন - ব্যাখ্যাতীত অভিমান (আমি হয়ত এমনই একজন )

hasan_adnan'র সাম্প্রতিক লেখা