ইউজার লগইন

আমার চলচ্চিত্রদর্শন : "অন্তহীন"

পোস্টারধুলো-ধোঁয়া, ব্যস্ততা আর ইট পাথরের অরণ্যজালে বন্দী এই নগরজীবন, যেখানে মানুষে মানুষে যোগাযোগ মানেই এসএমএস আর মুঠোফোন, জীবন মানেই শেয়ার বাজারের সূচক আর সম্পর্ক মানেই কেবল ফর্মালিটিজ এমন পরিবেশে ভালবাসার খোঁজে মানুষের অন্তহীন পথ চলার কাহিনীই অনিরুদ্ধ রায়চৌধুরী সেলুলয়েডের ফিতায় বন্দী করেছেন তাঁর দ্বিতীয় চলচ্চিত্র "অন্তহীন" এ। ভালবাসার প্রতি আস্থা হারানো পুলিশ অফিসার অভিক চৌধুরী(রাহুল বোস) ভালবাসা খুঁজে বেড়ায় তার ভার্চুয়াল বন্ধু সাংবাদিক বৃন্দা রায়ের(রাধিকা আপ্টে) মাঝে। চোখে না দেখা এই ভালোবাসার জন্য অভিক অনন্তকাল অপেক্ষা করতে রাজী। ওদিকে অভিকের কাজিন রঞ্জন(কল্যাণ রায়) তার স্ত্রী পারমিতার(অপর্ণা সেন) সাথে বিচ্ছেদের বেদনা ভুলতে নিজেকে ডুবিয়ে দেয় শিভাস রিগাল আর শেয়ার বাজারের সূচকে। মিডিয়ার ব্যস্ত কর্মকর্তা পারমিতা এখনো তাঁর প্রাক্তন স্বামীকে ভালবাসে, কিন্তু কোন এক অদৃশ্য দেয়াল যেন তাদের এক হতে বাধা দিয়ে যায় নিরন্তর। আবার ব্যস্ত ব্যবসায়ী মেহরার কাছে ভালোবাসা মানে তার স্ত্রীর যত্নে অবহেলা করা ভৃত্ত্যকে ধমকানো। ব্যক্তিভেদে ভালোবাসার অর্থ কতটা বদলে যায় "অন্তহীন" এর অভিক-বৃন্দা, রঞ্জন-পারমিতা, শিল্পপতি মেহরা ও তাঁর বিপর্যন্ত্র স্ত্রী - চরিত্রগুলো তা-ই বর্ণনা করে গেছে।

অন্তহীন ছবিটির কাহিনী এগিয়েছে বেশ ধীর গতিতে। ছবির বাণিজ্যিকীকরণের জন্য পরিচালক কিছু ক্লিশে সীন ব্যবহার করেছেন যা কাহিনীর স্বাভাবিক গতিকে কিছুটা হলেও মন্থর করেছে। বিশেষ করে শর্মিলা ঠাকুরের মণি পিসি চরিত্রটির প্রতি পরিচালক মোটেও সুবিচার করতে পারেন নি। সব থেকে দৃষ্টিকটু মনে হয়েছে চলচ্চিত্রে ঘন ঘন রিলায়েন্স, নিহার, পেপসি জাতীয় করপোরেট ব্র্যান্ডগুলোর ক্রমাগত প্রচারণা। রঞ্জন-পারমিতার সম্পর্কটিকে পরিচালক মাঝেমধ্যে মূল কাহিনী থেকেও বেশি গুরুত্ব দিয়ে ফেলেছেন যা সাধারণ দর্শকদেরও চোখে লাগবে। তবে ছবির এসমস্ত দুর্বলতা ঢাকতে অব্যর্থ ছিল ছবির অপূর্ব সংগীত পরিচালনা এবং ক্যামেরার কাজ। সংগীত পরিচালক শান্তনু মৈত্র তাঁর দক্ষতা এবং সৃজনশীলতার সুস্পষ্ট ছাপ রেখেছেন ছবির প্রতিটি গান এবং আবহ সংগীতে। সেই সাথে জানালার কাঁচে বৃষ্টির অবিরাম আঘাতের মতো কিছু সামান্য দৃশ্যকেও অসামান্য করে ফুটিয়ে তোলার জন্য সিনেম্যাটোগ্রাফার অভিক মুখার্জী বাহবা পাওয়ার দাবী রাখেন। মিডিয়ার হাই প্রোফাইল কর্মকর্তার চরিত্রে অপর্ণা সেন ছিলেন দুর্দান্ত। চলচ্চিত্রের পর্দায়(এবং বাস্তব জীবনেও) অপর্ণার স্বামী কল্যাণ রায় নিঃসঙ্গ সূরাসক্ত একজন মধ্যবয়সী কর্পোরেট কর্মকর্তার ভূমিকায় করেছেন অনবদ্য অভিনয়।

২০০৬ সালের ভারতের জাতীয় পুরষ্কারপ্রাপ্ত ছবিটি আমাকে একেবারে হতাশ করে নি। হ্যা, ছবিটির চিত্রনাট্য হয়তো দু'ঘন্টা দর্শকদের আটকে রাখবার মতো নয়, নিসন্দেহে আপনি এটাও বলতে পারেন যে এমন ভালবাসার কাহিনী এর আগেও হাজারখানা হয়েছে তবুও এই চিরাচরিত কাহিনীর মাঝেই অনিরুদ্ধ কিছু কিছু দৃশ্যপট উপহার দিতে পেরেছেন যা চলচ্চিত্রটিকে মনে রাখবার জন্য যথেষ্ট। ভালবাসার জন্য আজন্ম অপেক্ষা এর আগেও হাজারটা ছবিতে দেখানো হয়ে থাকতে পারে, কিন্তু "অন্তহীন" আরো একবার দর্শকদের মনে করিয়ে দেবে যে ভালবাসা কখনোই পুরনো হয় না, ভালবাসার জন্য অপেক্ষা করাই যায়, অন্তহীন অপেক্ষা।

পোস্টটি ৯ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

আবদুর রাজ্জাক শিপন's picture


ভালো লাগলো !

ভালোবাসা পুরনো হয়না -- আহা ! সত্যিই যদি ভালোবাসা পুরনো না হতো ।

অপরিচিত_আবির's picture


ভালবাসা পুরনো হয় ধূলোও জমে তাতে ...

ভাঙ্গা পেন্সিল's picture


তোর ব্লগেই দেখছিলাম

অপরিচিত_আবির's picture


ব্লগস্পটে?

ভাঙ্গা পেন্সিল's picture


ভাস্কর's picture


অনিরুদ্ধ রায় চৌধুরীর নাম আগে শুনি নাই, কিন্তু অভীকদারে চিনি...তার সিনেমাটোগ্রাফির খ্যাতি সম্পর্কে ধারণা আছে...

ভালো লাগলো চলচ্চিত্র ভাবনা...

অপরিচিত_আবির's picture


আমিও শূনি নাই, এটাই তার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র আমি যতদূর জানি।

বোহেমিয়ান's picture


ভাল্লাগছে
বুইড়া আংগুল

আছে না তোমার কাছে? তোমাগো রুমে হামলা করুম পরীক্ষা শ্যাষ হওনের পর ই!

অপরিচিত_আবির's picture


এ কথা তো সেই কবে থেকেই শুনে আসছি Sad

১০

শওকত মাসুম's picture


আমার ধারণা এই ছবির গান বাংলা ছবির গানের ধারা পালটে দেবে।

১১

অপরিচিত_আবির's picture


শান্তনু মৈত্র শ্রেয়া ঘোষালকে দারুণভাবে কাজে লাগিয়েছেন।

১২

তানবীরা's picture


এর গানগুলো আমার জান।

আমার রাত জাগা তারা
তোমার অন্য কোথাও বাড়ি
আমি পাইনি খুঁজে তোমায়
আমার একলা লাগে ভারী .........

১৩

কাঁকন's picture


আপু এটা মহিনের ঘোড়াগুলি এর গান না?

 

সিনেমাটা  দেখা হয় নি

১৪

শিরোনামহীন's picture


na mohiner ghoraguli na, chandrabindoo

১৫

তানবীরা's picture


চন্দ্রবিন্দুর গান

১৬

টুটুল's picture


সিনেমা ছাড়াও গানগুলো খুবি চমৎকার ছিলো..

১৭

অপরিচিত_আবির's picture


আসলেই

১৮

শিরোনামহীন's picture


cinema gaan sob i onek onek shundor

১৯

অপরিচিত_আবির's picture


সিনেমার থেকেও গানগুলো সুন্দর

২০

হিমালয়৭৭৭'s picture


গানগুলো খুবই চমৎকার।।। তবে চিত্রনাট্য একেবারেই হাস্যকর পর্যায়ের গৎবাধা।।। আর ডাবিং আলাদা ভয়েস হওয়ায় মনে হয়েছে বিদেশী সিরিয়ালের বাংলা ভার্সন দেখছি।।। রিভিউ আরো ডিটেইল লিখতে পারতা।।।
অপর্ণা সেন আর তার স্বামীর সম্পর্কটা বেশ আগ্রহ তৈরি করেছে।।। এই সিনেমার একটামাত্র দৃশ্যই আমার ভাল লেগেছে, তুমি খেয়াল করেছো কিনা জানিনা : শেষদৃশ্যে চন্দ্রবিন্দুর গান, রাহুলবোস গাড়িতে যাচ্ছে, প্রতিদিন যে লোকটাকে মোড় বসে চা খেতে দেখত, তাকে ঐদিনই প্রথম হোন্ডা নিয়ে নড়তে দেখা যায়।।। এই দৃশ্যের মেসেজটা দারুণ লেগেছে।।। এর বাইরে সিনেমায় কিছুই পাইনি।।।

২১

অপরিচিত_আবির's picture


কয়েকটা দৃশ্য আর গানগুলো ছাড়া আমারো বেশ মামুলিই মনে হয়েছে। তবে বেশি ডিটেইলসে যাই নাই, খামাখা পাবলিকরে বিরক্ত করে কাম কি, তাছাড়া পরীক্ষারে একটা ন্যুনতম সম্মান দেখানো উচিত এই আর কি!

আপনারে এইখানে পাইয়া দারুণ উচ্ছ্বসিত, ভালো সমালোচনা পাইলেই কেবল ভালো লেখা সম্ভব।

২২

সন্দীপ 's picture


অন্তহীন মুভি টা সত্যি খুব ভালো, আর গানগুলোতো আর ভালো, একদম মনকে ছুঁয়ে যায়। তবে একটা কথা- এই মুভি তে ব্যবহিত কবিতা গুলি সম্বন্ধে যদি কেউ আলোকপাত করতে পারেন, তবে খুব খুশি হব।

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.