ইউজার লগইন

খুচরা পোস্ট ৪ : টিম ও নেলা'র উপহার

জোনাল প্রোবলেম
মৌসুমের বাসা সারাদিনব্যাপি আড্ডা দিয়া রাতের বেলা বারাইলাম। অন্যরা যার যার মত চইলা গেল আমি আর বিলাই হাটা ধরলাম একসাথে। আমাদের দুইজনের বাসা একইদিকে। হাটতেছি আর ভাবতেছি কেমনে যামু। আমাদের ঐদিকে যাওয়ার জন্য সাধারণত কিছু পাওয়া যায় না। কয়টা রিক্সা দেইখা বিলাই জিগাইল। একজন উত্তর দিল 'আমি ঐদিকে যাই না।' আরেকজন বলল ভাল্লাগতেছেনা। আমি বিলাইরে বললাম, দেখছ জোনের বাইরে থাকার প্রোবলেম? পরে কপালগুনে সিএনজি পেয়ে আসতে আসতে আমরা একমত হইলাম যে পরের আড্ডা বেইলি রোড থিকা রামপুরা পর্যন্ত জোনের মধ্যে করা উচিত।

টিম ও নেলা
ও হেনরির দ্যা গিফ্‌ট ওফ ম্যাজাইয়ে জিম ও ডেলা একজন অপরজনকে যে উপহার দেয় তা জিম বা ডেলা কারোই ব্যাবহারিক কোন কাজে লাগেনা। গল্প পড়ে আমাদের মন ভারাক্রান্ত হয়ে উঠে। কিন্তু টিম ও নেলার গল্পটা আনন্দের। টিম যখন নেলার জন্মদিনে দেয়ার জন্য দামী নোকিয়া ফোন কিনছিল তখন আমি সেখানে ছিলাম। ভালবাসার মানুষকে খুশি করার এই চেষ্টা দেখে ভাল লাগছিল খুব।

টিমের একটা ডিএসএল ক্যামেরার শখ ছিল। টিমের বন্ধুদের অনেকের ক্যামেরা আছে। পিকনিক বা ফটো ওয়াকে বন্ধুদের ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলেছে। নেলা জানে ছবি তুলতে সে পছন্দ করে কিন্তু নিজের জন্য এত টাকা দিয়ে ক্যামেরা কিনবেনা।

টিমের জন্মদিনের সপ্তাখানেক আগে নেলা আমাকে জানায় টিমের জন্য ক্যামেরা কিনবে। আমি যেন তার সাথে গিয়ে সাহায্য করি কেনার ব্যাপারে। কিন্তু জন্মদিনের আগে পর্যন্ত জিনিসটা গোপন রাখতে হবে। সাথে সাথে আমার জিম ও ডেলার কথা মনে পরল। মনটা ভরে গেল। ভালবাসার মানুষ কে খুশি করতে এই যে দুইজনের প্রচেষ্টা তার সাথে কি কোনো কিছুর তূলনা হয়!

পোস্টটি ১২ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

রাসেল আশরাফ's picture


টিমতো হয়েই আছি এখন খালি নেলার অপেক্ষায়। Sad Sad

হাসান রায়হান's picture


সিলেটের দিকে খুঁজো।

রাসেল আশরাফ's picture


ঐ এলাকা তো আমার জোনের মধ্যে না। Sad Sad

জ্যোতি's picture


আমি জোনের বাইরের লুক।
এরম একজন যদি পাইতাম, এত্ত ভালোবাসবে, আবার ক্যামেরা ও দিবে। আহারে কেউ নাই। আফসুস।

হাসান রায়হান's picture


তোমার কষ্টে ইচ্ছা করতেছে আমার্টা তোমারে দিয়া দেই।

জ্যোতি's picture


এই জীবনে কেউ কুনুদিন আমার কষ্ট বুঝলো না। কবে দিবেন কন।কত যে ভালুবাসি বঝলেন না তো!

জেবীন's picture


রায়হানভাই, ক্যাম্রা নেয়ার লাইনে আমিও আছি কি্ন্তু, Cool

হাসান রায়হান's picture


একটা কেমেরা দুইজনরে দেই কেমনে। থাউক তাইলে।

জ্যোতি's picture


আপনার মনে এই ছিলো রায়হান ভাই? আবারো জেবীন প্যাঁচ লাগাইলো। জীবনে আমার কিছুই হইলো না। আফসুস।

১০

প্রিয়'s picture


এরম একজন যদি পাইতাম, এত্ত ভালোবাসবে, আবার ক্যামেরা ও দিবে। আহারে কেউ নাই। আফসুস। Wink Tongue

১১

জ্যোতি's picture


সমবেদানা। এরম জীবন রাইখা কি লাভ?

১২

প্রিয়'s picture


টিসু টিসু

১৩

জ্যোতি's picture


থাক টিস্যু দিয়া আর নাক মুইছেন না। আমগো ঋহানের কাছে শিখেন কেমনে টিসু দিয়া মুখ মুছতে হয়।

১৪

কামরুল হাসান রাজন's picture


টিম আর নেলা কি ব্লগের কেউ নাকি? Party

১৫

রাসেল আশরাফ's picture


তোমারে এই ব্লগ থেকে বহিষ্কার করা উচিত। Crazy Crazy

১৬

জ্যোতি's picture


এরম ঝাড়ি দিলেন? ডরাইব তো!

১৭

কামরুল হাসান রাজন's picture


কেন ভাই আমি কি করলাম Sad

১৮

রাসেল আশরাফ's picture


হ তুমি কিছু করো নাই!!! Crazy Crazy

সেই কবে থেকে পোস্ট দিবা তার একটা মুলা ঝুলায় রাখছো।আবার এখন ব্লগের টিম আর নেলারে চিনো না।তোমার এইজীবন রেখে লাভ আছে? তুমিই কও?
আছো তো খালি ঈদের দিন লায়ক সেজে পোজ দেয়ার বেলায়। তা শাহাদত হইতে মুন চায় নাকি?

১৯

কামরুল হাসান রাজন's picture


না ভাই আমি লম্বা ও না, ফর্সা ও না Laughing out loud

২০

রায়েহাত শুভ's picture


আপ্নেগো জোনে কবে আড্ডা?

টিম আর লেলা'রে ভালা পাই Smile

২১

হাসান রায়হান's picture


ঐ জোনে আরো কিছু বলগার পাইলে দাবী শক্ত হইত। গৌতম আছে আমাদের জোনে। এই জোনে সাঈদ বা মৌসুমের মত কেউরে খুজতেছি।

২২

গৌতম's picture


এখন থেকে আমরা বন্ধুর যাবতীয় আড্ডা হবে বেইলি রোড, বাসাবো, রামপুরা ইত্যাদি এলাকা বা কাছাকাছি। নির্দেশনা আজ থেকে কার্যকর হবে। Tongue

২৩

জ্যোতি's picture


ঠিকাছে। কবে দাওয়াত দিবেন কইয়া ফেলেন।

২৪

তানবীরা's picture


বেশির ভাগ নেলারা কি পছন্দ করে তার পাশের লোক সেটা জানেই না। উলটা বিরক্ত হয়, তোমারতো পছন্দের শেষ নাই, কতো মনে রাখবো।

অল্পকিছু নেলারাই লাকি Puzzled

২৫

হাসান রায়হান's picture


তুমি কী দিছো দিম ভাইরে?

২৬

টুটুল's picture


বাহ!!!
সুন্দরতো ঃ)

২৭

হাসান রায়হান's picture


দারুন না? Laughing out loud

২৮

জেবীন's picture


টিম চুম্মা নেলার কান্ডকারখানা অনেক পছন্দের! . Cool
আপ্নেদের ঐদিকের জোনে পাব্লিক কেম্নে যাইবো এত্তোদূরে, আর আপ্নের অফিসও তো আড্ডার জোনেই! Cool

২৯

হাসান রায়হান's picture


পাব্লিকের চিন্তা পাবলিক্করবো। আড্ডা দিয়া ফির্তে আম্রা যখন কষ্ট করি তখন পাব্লিকরা আরামে বাসায় যায়।

৩০

শওকত মাসুম's picture


সিলেটি নেলারা যে এরম আগে যদি জানতাম Sad আফসুসের ইমো কোনটা?

৩১

কিছু বলার নাই's picture


পোলার আসল নাম 'ডালিম' আর মাইয়ার আসল নাম 'গীতি' হইলে খবরই ছিলো Wink

৩২

জ্যোতি's picture


এই ভোরবেলায় মৌসুম ব্লগে! ভূত না তো! লা ইলাহা......

৩৩

কিছু বলার নাই's picture


আল্লাহর রহমতে রুটিন ঠিকঠাক কইরা ফেলছি, এখন রাইত ৩টায় ঘুমাইতে যাই, সকাল ৯.৩০টায় উঠি। Cool

৩৪

জ্যোতি's picture


মাশাল্লাহ। এই উপলক্ষে আজ একটা ছুটু মিলাদ দেন্। Laughing out loud

৩৫

কিছু বলার নাই's picture


আইসা পড়েন, আইস টি খাওয়ামু Big smile

৩৬

জ্যোতি's picture


খালি টি? টির সাথে জিলাপী ছাড়া কুনু কিছু নাই?

৩৭

কিছু বলার নাই's picture


জিলাপি তো শেষ! তবে সেইটা বড় সমস্যা না, টুটুল ভাইরে জানাইলেই হবে। আমার টেবিলে আছে বিস্কিট। আর ফ্রিজ দেইখা আইলাম, কয়টা কলমী শাক, কয়টা মরিচ, একটা টমাটো আর অর্ধেকটা লাউ আছে। আর আছে পাউরুটি আর জ্যাম। এমনিতে একটু পর বাজার করতে বাইর হমু, তার মানে আরো অনেক জিনিষ আসিতেছে Party

৩৮

জ্যোতি's picture


আপনেরে বাসাটা কুনু কিছু দিয়া টাইনা আরেকটু কাছে আনেন, তাইলে রায়হান ভাই যাইব কইছে আইস টি খাইতে।
ফ্রিজে তো মেলা জিনিস আছে।

৩৯

কিছু বলার নাই's picture


আমার বাসা তো কাছেই! আর গাড়িওয়ালাদের আবার এতো ঢং কিসের। গাড়ি লইয়া ক্যাম্পাস যাইয়া আপনেরে নিয়া সোজা নিকেতন Big smile

৪০

কিছু বলার নাই's picture


ও আচ্ছা, দুই রায়হান গুলাইছি Puzzled

৪১

জ্যোতি's picture


কুনু গাড়িওয়ালারে তো দেখতাছি না, তাইলে আজ দুপুরে রানতে হইতো না।:D

৪২

কিছু বলার নাই's picture


আইসা পড়েন, আমি চা বানান শুরু কইরা দিলাম।

৪৩

জ্যোতি's picture


রায়হান ভাই চুপ কইরা তসবী পড়তাছে। একলা তো আইতে পারিনা। আমার ফ্রিজেও নানান জিনিস আছে।

৪৪

কিছু বলার নাই's picture


তসবি পড়ে ক্যান? ফোন দিতে থাকেন, ধ্যানে ব্যাঘাত ঘটান। আপনের ফ্রিজের জিনিষপাতি নিয়া রওনা দ্যান।

৪৫

জ্যোতি's picture


Hasan Raihan: gum dorse
দেখছেন? খোচাইতেই আছি। মনে হয়, বাসায় ও রান্না হবে না, দুপুরে খাওয়াও হপে না আমার Sad(

৪৬

কিছু বলার নাই's picture


আমার বাসায় আইসা ঘুমাইতে কন। আর আপনে একটা সিএনজি ধইরা আইসা পড়েন। নিউ মার্কেটের সামনে তো পাওয়ার কথা।

৪৭

জ্যোতি's picture


আড্ডাবাজি করে জীবনটা পার হলে তো ভালোই হতো!

৪৮

কিছু বলার নাই's picture


তাই তো করার প্ল্যান Laughing out loud

৪৯

জ্যোতি's picture


মাইনষের কত সুখ! হিংসা লাগে।
আপনের আইস টি টা জোশ লাগছে। Laughing out loud
কয়দিন ধরে কেমন অস্থিরতায় দিন কাটাইতেছি। অস্থির অস্থির লাগে সারাক্ষণ, কেমন যেনো হু হু করা একটা অনুভূতি.... তাই এমন ঘুইরা বেড়াইলাম, জ্বালাইলাম লুকজনরে।
আপনাদের জোনে আড্ডা দিয়ে বাড়ী ফেরা ব্যাপক কষ্টের। অনেক হেঁটে মেইন রোডে আসলাম, অনেকক্ষণ দাঁড়ায়ে থেকে রিক্সা, তারপর সি এন জি, তারপর আবার রিক্সা।:((
রায়হান ভাই মগবাজার ওভারব্রীজের নীচে নেমে গেলো।:D

৫০

কিছু বলার নাই's picture


এইটা ক্যানো হয় বুঝতেছিনা, আমিতো যাই ক্যাম্পাস সিএনজি নিয়া। আড়ং-এর গেইটে গেছিলেন? ঐখানে তো সিএনজি থাকে! Worried

৫১

জ্যোতি's picture


আমরা তো আড়ং ই পাই নাই খুঁজে। দুনিয়া ঘুরে মেইন রাস্তায় আসলাম। Laughing out loud

৫২

একজন মায়াবতী's picture


টিম - নেলা কি নতুন ক্যামেরা নিয়া ঘুরতে বের হইসে নাকি?

৫৩

হাসান রায়হান's picture


নোপ! টিম্নেলার মধ্যে এখন রাগ অনুরাগ পরব চলিতেছে। Love

৫৪

মীর's picture


আমিও এবার পেয়েছি একটা হিউজ গিফট Big smile

৫৫

হাসান রায়হান's picture


কী?

৫৬

মীর's picture


হাহা, বিশেষ কিছু না, খাট। তাওতো এটা বড় গিফটের ক্যটেগরীতেই পড়বে, তাই না?

৫৭

লীনা দিলরুবা's picture


খাট গিফট পাইছেন! কাহিনিটা বিস্তারিত শুনি।

৫৮

জ্যোতি's picture


বিবাহের সময় পুলারা শ্বশুর বাড়ি থেকে খাট গিফট পায় না? মনে কষ্ট পাইলাম যে, দাওয়াত পাইলাম না।

৫৯

লীনা দিলরুবা's picture


মীর আমাদেরকে দাওয়াত না দিয়া বিয়ে করে ফেলছে! দিক্কার।

৬০

জ্যোতি's picture


দিক্কার দিয়া আর কি করবেন? আপনের এরমই বন্ধু।খাট পাইছে সেইটা শুনায় যাতে আমরা বুঝে নেই। আমাদের দোয়াও নিলো না। নিঠুর বন্ধু আপনের। আপনের মত।:P

৬১

লীনা দিলরুবা's picture


মীর, দেখলেন আপনেরে জয়িতা কি ট্যাগিঙ করলো, সুযোগ মতো আমারেও দিলো Sad

৬২

জ্যোতি's picture


কেনু? আপনি কি কইতে চান আপনের বন্ধু মীর নিঠুর না? কয়দিন পর পর যে হাওয়া হয়ে যায়, আমরা কি খুঁজে পাই তারে? আর আপনি কি নিঠুর না? কর দেখি সাহস কইরা!Laughing out loud

৬৩

লীনা দিলরুবা's picture


আমি নিঠুর হৈলেও হৈতে পারি Wink মীর নিঠুর না Smile সে আত্মগোপন টাইমে বিয়া করছে, বিয়া করা ফরজ কাম।

৬৪

জ্যোতি's picture


আর বিয়া কইরা বন্ধুদের না জানানো কেমন কাজ?
আপনে কেন নিঠুর হবেন? নিষ্টুর হবে পুলারা। আল্লায় তাদের দয়ামায়া দেয় নাই।

৬৫

লীনা দিলরুবা's picture


ওহ! আমি তাইলে নিঠুর না! আল্লাহ এই যাত্রা বাঁচাইছে Smile

৬৬

রাসেল আশরাফ's picture


আপনাগো নিঠুর বন্ধু মুনে লয় খাট পাইছে এখন তোষক চায়!!! Tongue

৬৭

লীনা দিলরুবা's picture


Smile দেখি বন্ধু কি কয় Wink

৬৮

মীর's picture


বাপ আমার পুরান পাশি'ভাঙ্গা খাট বিদায় করে নতুন খাট-তোষক-বিছানা দিছে। আর কোনো বিষয় নাই। Big smile
লীনা আপু কেমন আছেন? আপনারে কতদিন পর দেখলাম। আসেন চক্কর দেই
Smiley

৬৯

জ্যোতি's picture


ঠিকাছে। আপনের বন্ধুরে ডাইকা আইনা দিলাম আর দুইজনে চক্কর খান, আমরা দুধভাত!

৭০

মীর's picture


হাহাহা, আপনে এই ভরসন্ধ্যাবেলা ব্লগে কি করেন? বাসায় কুনু কাজ নাই? নাকি উদাস হৈসেন সন্ধ্যা নামা দেইখা?

৭১

হাসান রায়হান's picture


@মীর, এইবার একটা দাও নিয়া খাট টা মাঝখান থিকা কাটার অভিনয় করেন, আর চিল চিল্যান দিয়া বলেন, এতবড় খাট দিয়া কী হইব...

৭২

মীর's picture


জ্বি না আমার এতসুন্দর খাট আমি কাটতে চাই না। বাপে খাট দেওনের সময় কৈসে- গ্রামদেশ থিকা তোর মামা-চাচারা আসলে শোয়ার জায়গা নিয়া টানাটানি লাগে, তাই এইবার বড় খাট বানায় দিলাম। Tongue

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

হাসান রায়হান's picture

নিজের সম্পর্কে

অথচ নির্দিষ্ট কোনো দুঃখ নেই
উল্লেখযোগ্য কোনো স্মৃতি নেই
শুধু মনে পড়ে
চিলেকোঠায় একটি পায়রা রোজ দুপুরে
উড়ে এসে বসতো হাতে মাথায়
চুলে গুজে দিতো ঠোঁট
বুক-পকেটে আমার তার একটি পালক
- সুনীল সাইফুল্লাহs