ইউজার লগইন

আমার মনে হয় ডারউইন মানসিক চাপের কারণে অসুস্থ্য হয়ে পড়েন- পল বিটানি।

ডারউইনের অরিজিন অব স্পিসিস বইটার জগতময় আলোড়ন আজো থামেনি। একজন গবেষক হিসাবে না। একজন মানুষ হিসাবে ডারউইনরে যে পরিমাণ মানসিক সংকট আর শারীরিক দূরাবস্থা কাটাইতে হইছে তার ইতিহাস কেউ মনে রাখে না। নিজের বড়ো মেয়েক হারিয়ে, অনেক সংগ্রাম আর প্রতীক্ষার পরো মেয়েটাকে বাঁচাতে না পেরে, ঈশ্বর মানতো না যে ডারউইন সে-ই কি না মেয়ের সুস্থ্য হবার কামনায় চার্চে গিয়া মেয়ের জন্য প্রার্থণা করে। এসকল ঘটনা আসলে মানবিক জীবনের আড়ালের গোপনের হৃদয়ের কুঠুরিতে লুকানো বিষয়। অনেক বড়ো বড়ো আবিষ্কারের নিচে চাপা পড়ে যায় সেই আবিষ্কারের পিছনের ব্যক্তি মানুষটি। তার ক্রোধ, কান্না, হতাশা। ডারউইনের বউয়ের অবদানও হয়তো কেউ মনে রাখবে না অরিজিন অব স্পিসিস পড়তে গিয়ে। কিন্তু এত সকল কাহিনী নিয়েই জন এমিয়েল তৈরি করেছেন ক্রিয়েশন সিনেমাটা। ডারউইন চরিত্রে অভিনয় করেছেন পল বিটানি। তার একটা সাক্ষাৎকার অনুবাদ করে দিলাম। সিনেমাটাও দেখতে পারেন।

 - মাস্টার এনড কমান্ডার: ফার সাইড অব দি ওয়ার্ল্ড ছবির চরিত্র কি আপনাকে ক্রিয়েশন ছবিতে অভিনয়ে সাহায্য করেছে কারণ দুইটা চরিত্রই কাছাকাছি ছিল।

: দুটি সিনেমাই একই বিষয় নিয়ে এবং আগ্রহের বিষয়ও জীববিজ্ঞান, কিন্তু চরিত্রের বিচারে? স্টিফেন মাটুরিন( মাস্টার এন্ড কমান্ডার ছবিতে) ছিলেন একজন গোয়েন্দা, লড়াই করতে জানতো, সে যদি তার সংঘবদ্ধতা নিশ্চিত করতে পারতো, তাহলে সে বিজয়ী হতো। ডারউইন তার স্ত্রীর সহযোগীতা ছাড়া ব্যার্থ হতে পারতেন। এবং এখানে দুইটি চরিত্র গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছে একজন রহস্যময়ী আরেকজন যিনি গোটা দুনিয়াকে পাল্টে দিয়েছেন।
আমি যখন নিশ্চিত হলাম যে গেলাপোগাস দ্বীপে যাবো ডারউইনের মতো চরিত্রে অভিনয় করতে। আমি ভোয়েইগ অব দি রিগেল বইটা পড়তে শুরু করলাম যখন আমরা মাস্টার এন্ড কমান্ডার ছবির শ্যুটিং করছিলাম। তিনি ছিলেন একজন প্রকৃত মেধাবী।  তিনি বছরে একটি করে বই লিখতেন। এবং সেটা ছিল একটা বৈজ্ঞানিক বইয়ের চাইতে অনেক বেশি সহজ, অন দি অরিজিন অব স্পেসিস ছিল একটা প্রচন্ড আঘাত। কিন্তু তার ডায়েরি যেন বন্ধুর কাছে চিঠি লেখা। আপনার মনে হবে তিনি আপনার সাথে কথা বলছেন।

 

- ডারউইন সম্পর্কে আপনার ভাবনা কি।

: আমার মনে হয় তিনি একজন শান্ত মানুষ ছিলেন, তিনি অসুস্থ্য ছিলেন, শারীরিকভাবে অসুস্থ্য এমনকি তিনি যখন বিশ্ব ভ্রমণে বের হন তখনও তিনি অনেক তেজি ছিলেন। তিনি শিকার করেছেন, মাছ ধরেছেন, খেলেছেন এবং সারা বিশ্ব জুড়ে অভিযান চালিয়েছেন। ফিরে এসেই তিনি অসুস্থ্য হয়ে পড়েন। অরিজিন গ্রন্থ লেখার বিষয়টি তার অনেক উৎফুল্লতা কেড়ে নিল। তিনি নিজেই লিখেছেন- "আমার মনে হচ্ছে আমি খুন করতে যাচ্ছি।" লোকজন আমাকে জিজ্ঞেস করেছিল আমি কি উদ্বিগ্ন ছিলাম এই ছবির প্রতিক্রিয়া নিয়ে- আসলে সব মানুষের ভেতরেই সৃষ্টিশীলতা থাকে। কিন্তু তিনি ছিলেন অন্যরকম। এই বিষয়টিই ছিল অনেক উৎসাহব্যঞ্জক।

 

- তার অসুস্থ্যতা নিয়ে অনেক বিতর্ক আছে, আপনি বলতে চাচ্ছেন তিনি নিজেই নিজেকে অসুস্থ্য করে তুলেছেন

: আমি মনে করি তার অসুস্থ্যতা ছিল মানসিক চাপ জনিত। এবং এর প্রকাশ ছিল নানা মাত্রায়। যেমন তিনি উন্মাদের মতো ঠান্ডা পানি থেরাপি নিয়েছেন যা আসলে বৈজ্ঞানিক কোন পদ্ধতি না অথচ তিনি বলছেন, "আমি ভালো বোধ করছি"। আমার মনে হয়েছে এটা সচেতন কোন কাজ হয় নি, এটা ছিল এই ছিবর একটা দূর্বলতা। ফলে আমি নিজে থেকে তাকে বুঝবার চেষ্টা করলাম, তার হতাশা, পাগলামি এসব খুব ভালো করে বুঝবার চেষ্টা করলাম।

 

- আপনি জেনি নামে একটা ওরাংওটাঙের সাথে কিছু দৃশ্যে অভিনয় করেছেন। কেমন অভিজ্ঞতা হলো আপনার।

: আমি দুর্বোধ্য এক ওরাংওটাঙের পাশে বসে আছি খেলছি এবং তাকে বলছি " তোমার সাথে আমার কোন সম্পর্ক নেই এবং আমাদের পূর্বপুরুষও এক না।" আমি একটা বিষয় অনুভব করেছি, সে আমার চোখের দিকে তাকিয়ে আছে এবং আমার সাথে খেলছে। আমি মাউথঅর্গান বাজালাম, নাচলাম, এরপর সে আমার কাছ থেকে মাউঠঅর্গান কেড়ে নিয়ে বাজালো, সে আমার কলম নিয়ে আঁকতে শুরু করলো। আমরদের মোটেও কোন পূর্বপরিকল্পনা ছিল না। সে আমার উইগ টেনে খুলে ফেললো। আমাকে ধাক্কা দিয়ে খাঁচায় ঢুকিয়ে ফেললো। সে আসলেই খুব শক্তিশালী ছিল।

 

- আপনি কি ভীত ছিলেন।

: একটা ভুতূড়ে অনুভূতি হচ্ছিল। ক্যামরে অন হতেই আমার হার্টবিট দুর্বল হতে শুরু করলো। আমি শান্ত থাকলাম কারণ আমি জানি কি ঘটতে যাচ্ছে। এবং ক্যামেরার সামনে আপনি এমন কিছু করতে পারবেন যা আপনি অন্য সময়ে করতে পারবেন না। আমার মনে পড়ছিল মাস্টার এন্ড কমান্ডার ছবির কথা। আমার সারা শরীরে ছারেপাকা হেঁটে যাচ্ছে। এবং আমি ছারপোকা ঘৃণা করি। আমি প্রচন্ড অপছন্দ করি । তেলাপোকা হলে হয়তো আমি কাজটা পারতাম না।

 

- আপনার স্ত্রীর সাথে অভিনয় করার বিষয়ে বলুন।

: সাধারণত প্রধাণ পুরুষ এবং নারী চরিত্র বিছানায় যায় এবয় পরর্তী দিনের কাজ বিষয়ে কোন আলাপ করে না। আমরা তা করেছি। আমাদের বাচ্চাদের জন্য ছিল এ এক দারুণ অভিজ্ঞতা যখন তারা সিনেমার সেট দেখতে পেল।

 

- আপনি এখন নিশ্চয়ই ভালো আছেন, আপনি এই সপ্তাহেই চার্লস ডারউইন এবং কিক-এস ফলেন এঞ্জেল (রিগিয়ন ছবিতে) এর ভূমিকায় অভিনয় করছেন।

: আমি সিনেমা ভালোবাসি। আমি স্পেন্সার ট্রেসিকে পছন্দ করি, কিন্তু আমি ডাউন অব দি ডেডো পছন্দ করি। আমি হরর সিনেমা পছন্দ করি। আমি ভূতের সিনেমাও পছন্দ করি। এবং আমি যখন যা করি আমি ভাবি " প্রকৃত চরিত্রই ফুটিয়ে তুলতে হবে " সবাই যেন বুঝতে পারে।

পোস্টটি ৬ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

টুটুল's picture


ভালো একটা বিষয় পড়া হলো

নিয়মিত লেখার রিকোয়েস্ট জানাইলাম Smile

নজরুল ইসলাম's picture


সিনেমাটা দেখার আগ্রহ থাকলো

শওকত মাসুম's picture


সিনেমাটা দেখার আগ্রহ থাকলো

তানবীরা's picture


prio te direct

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

সালাহ উদ্দিন শুভ্র's picture

নিজের সম্পর্কে

বিষয়টা খুব জটিল।