ইউজার লগইন

কেবলই আমাদের কথা

১.
আমার মেয়ে প্রিয়ন্তী। ক্লাশ টুতে পড়ে এখন। গত দুই ঈদে সালাম করে যত টাকা পেয়েছে সব একটা বাক্সে রেখে দিয়েছে। সেখান থেকে চুপটি করে ৫০ টাকা নিয়ে সেদিন স্কুলে গেলো। স্কুলে ওই দিন বইমেলার শেষ দিন ছিল। মেলা থেকে একটা বই কিনে লুকিয়ে রাখলো সে। ছোট মানুষ তো, ২০ এপ্রিল পর্যন্ত অপেক্ষা করার ধৈর্যটুকু রাখতো পারলো না। সন্ধ্যায় বইটি বের করে মনোযোগ দিয়ে লিখলো, ' আদরের দুষ্টু ভাইকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা-প্রিয়ন্তী, ২০/০৪/২০১২'।
15032012640.jpg
আমরা যখন বড় হয়েছি, তখনও এভাবে ভাবতে পারতাম না। আমার মনে আছে আমার স্ট্যাম্প সংগ্রহ করার সখ ছিল। একবার আমার ছোট ভাইয়ের জন্মদিনে সেই স্ট্যাম্প অ্যালবাম সুন্দর করে রঙিন কাগজে মুড়িয়ে দিয়ে দিয়েছিলাম। আবার এক মাস পরেই সেটা ফেরতও নিয়ে নেই। Big smile

২.
আমার ছেলে রাইয়ান, এবার প্লে- গ্রুপে পড়ছে। আপুর সঙ্গে তার রাজ্যের কথা। স্কুলে যা হয়, সব আপুকে বলা চাই। আর তার বেরসিক আপু আমাদের বলে দেয়।
সেদিন স্কুল থেকে এসে যথারীতি তার আপুকে সেদিনকার ঘটনা বলে দিল। আর আমরা শুনলাম রাতে।
15012012354_0.jpg
রাইয়ান বলেছে, তাদের স্কুলে নতুন একটা মেয়ে এসেছে। মেয়েটি আগের স্কুলটায় যে সুন্দর মেয়েটা ছিল, তার চেয়েও সুন্দর। নতুন এই সুন্দর মেয়েটির সঙ্গে এখন সে বন্ধুত্ব করতে চায়। কিন্তু মেয়েটা অনেক দুষ্টু।
Laughing out loud Big smile Wink

৩.
বউকে বললাম, কিছু টাকা জমলে দেশের বাইরে থেকে বেড়িয়ে আসি। শুনেই লাফাতে লাগলো দুই ছেলে মেয়ে। কনা (আমার বউ) বলে দিল বাচ্চাদের নেওয়া হবে না, ভাল লেখাপড়া করে নিজেদেরই যেতে হবে।
কিছুক্ষণ পর রাইয়ান এসে বললো, 'মা, আমাকে নাও, আমি না কখনো বিদেশ দেখি নাই'।
রাতে বাসায় ফেরার পর আমাকে বলে, 'বাবা, তোমরা আমাদের না নিলে না নিতে পারো, কিন্তু বড় হয়ে আমি তোমাদের নিয়ে যাবো।'
জানতে চাইলাম, 'কাকে কাকে নিবা?'
বললো, বাবা আর মাকে।
বললাম, 'আপুকে নিবা না?'
রাইয়ান-উহু, আপু তো তার জামাইয়ের সঙ্গে যাবে।
Stare Sad Puzzled

৪.
প্রিয়ন্তীকে ওর মাই পড়ায়। আলাদা টিচার নেই। বাচ্চাদের পড়াতে গেলে যা হয়, মাঝে মধ্যেই রাগারাগি পর্যায়ে চলে যায়। কণা সেদিন রাগ হয়ে চলে এসেছে। আমার মেয়ের আবার অল্পতেই চোখে পানি চলে আসে, কিছুই বলা যায় না। মা চলে আসায়, তার চোখে পানি চলে আসলো।
এসে মাকে জড়িয়ে ধরে কাঁদতে কাঁদতে বললো, 'আমাকে যদি আর না পড়াও, তাহলে আমার লেখাপড়া ভাল কেমনে হবে? আর ভাল না হলে বড় হয়ে ভাল চাকরি কেমনে করবো? ভাল চাকরি করতে না পারলে বড় হয়ে তোমাদের তাহলে আমি কেমনে দেখবো?'

৫.
আরও অনেক দিন আসলেই বেঁচে থাকতে সাধ হয়

পোস্টটি ১৬ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

লীনা দিলরুবা's picture


আহালে মামনীটা... দুইটাই চান্দের মত সুন্দর Smile

শওকত মাসুম's picture


বাপের মতো তো তাই Tongue

জেবীন's picture


১।বই! এইটুকুন পিচ্চি উপহার দিচ্ছে বই! এরা আসলেই এখন অন্যরকম করে ভাবে। আমরা তো আরো বড়ো হবার পর বই দেয়া শুরু করছি। Smile
২। ওররে! বাবাতো দেখি ব্যাগের ভারে কাইত! তবে চিন্তার দৌড়ে দেখি লাইনেই আছে Big smile

শওকত মাসুম's picture


হ, এরা বইয়ের ভারে ক্লান্ত। এতো ভাড়ি ব্যাগ নিতে হয় তাদের যে, আমারই নিতে হাত ব্যথা করে

লীনা ফেরদৌস's picture


রাইয়ান বলেছে, তাদের স্কুলে নতুন একটা মেয়ে এসেছে। মেয়েটি আগের স্কুলটায় যে সুন্দর মেয়েটা ছিল, তার চেয়েও সুন্দর। নতুন এই সুন্দর মেয়েটির সঙ্গে এখন সে বন্ধুত্ব করতে চায়। কিন্তু মেয়েটা অনেক দুষ্টু।

বাবার মত হ য়েছে রাইয়ান Wink

শওকত মাসুম's picture


কেন, আপনে দুষ্টু?

উচ্ছল's picture


'আমাকে যদি আর না পড়াও, তাহলে আমার লেখাপড়া ভাল কেমনে হবে? আর ভাল না হলে বড় হয়ে ভাল চাকরি কেমনে করবো? ভাল চাকরি করতে না পারলে বড় হয়ে তোমাদের তাহলে আমি কেমনে দেখবো?'

... আহারে.... পড়তেছি

** ভাইজান ভাবীরে কন পিিচ্চগুলারে যেন বেশি বকাবকি না করে....পিচ্চি দুইটারে অনেক অনেক আদর... Smile

শওকত মাসুম's picture


দোয়া কইরেন

টুটুল's picture


রাইয়ানের নাম মাসুম রাখা হোক Wink

১০

শওকত মাসুম's picture


হিংসা করা ভালু না টুটুল

১১

বিষাক্ত মানুষ's picture


আমাদের ঋহান যেইভাবে শিলা কি জাওয়ানী দেখে মাথা ঝাকায় তাই দেখে আমি রাইয়ান কে জিজ্ঞাসা করছিলাম - "শিলা কি জাওয়ানী" দেখেছে কিনা।
রাইয়ান তো লজ্জায় গালটাল লাল করে তীব্র ভাবে বললো - এই না না না না ... আমি এইসব দেখি না। Steve

ঠিকি আছে টিভির শিলাকে না দেখে স্কুলের সুন্দরীদের দেখা অনেক বেশি বাস্তবমুখি , ছেলে বুদ্ধিমান Cool

১২

শওকত মাসুম's picture


ব্যাপক বুদ্ধিমান Smile

১৩

বিষণ্ণ বাউন্ডুলে's picture


রাইয়ান আর প্রিয়ন্তী,
দুজনার জন্যই অনেক অনেক আদর আর ভালবাসা..

অনেক অনেক অনেক ভাল লাগা একটা পোষ্ট।

১৪

শওকত মাসুম's picture


Smile Smile Smile

১৫

রায়েহাত শুভ's picture


রাইয়ান বড় হয়ে মাসুম ভাইয়ের নাম রাখবে Wink

১৬

শওকত মাসুম's picture


আমি তো নিতান্তই মানুষ

১৭

রাসেল আশরাফ's picture


ভাতিজার চিন্তা দেখি পুরাই মাসুমীয়। Tongue Wink

১৮

শওকত মাসুম's picture


হিংসা ভাল না

১৯

শওগাত আলী সাগর's picture


সত্যিই দেখুন না, এখনকার বাচ্চাদের বেড়ে ওঠার ধরন, চিন্তার ধরন সবকিছুই আলাদা। কিন্তু আমরা বাচ্চাদের জগতটার কোনো খোজ খবরই রাখতে পারি না, এতে বাচ্চাদের কতোটা ক্ষতি হয় জানি না, কিন্তু আমরা বঞ্চিত হই অনেক কিছু থেকেই। সত্যিই মাসুম, 'অনেকদিন বেচে থাকার ইচ্ছেটা ' প্রবল করে দেয় বাচ্চাদের এই কাজগুলো।
প্রিয়ন্তী এবং রাইয়ানকে অনেক অনেক আদর ।

২০

শওকত মাসুম's picture


পুরাই একমত

২১

জ্যোতি's picture


ছেলে তো বাবার মতই হয়েছে!
সবাইকে নিয়ে সুখে আনন্দে শতবছর বেঁচে থাকেন।

২২

শওকত মাসুম's picture


আরও বাঁচতে তো সাধ হয়ই

২৩

নিঝুম অরণ্য's picture


আমার দুই ভাতিজা ভাতিজীর জন্য অনেক ভালোবাসা ! Smile Smile

আপনাদের জন্য সুখের জীবন কামনা করছি, সবটা ক্ষণ ধরে।

২৪

শওকত মাসুম's picture


Smile

২৫

নিকোলাস's picture


আপনাদের কথা খুব ভালো লাগলো... Smile

২৬

শওকত মাসুম's picture


Smile

২৭

আহমাদ মোস্তফা কামাল's picture


দেবদূতদের গল্প!
দেবদূতরা আসে আমাদের ধুলোমলিন ঘরে নির্মল সরলতা নিয়ে, আমাদের ঘর ও জীবন আলোর বন্যায় ভাসে... আমরা নতুন করে বেঁচে উঠি...

২৮

শওকত মাসুম's picture


ভাল বললেন কামাল ভাই

২৯

জোনাকি's picture


মজার তো আপনাদের কথা
পুচ্কি উসতাদকে দেখে ধন্য হলাম Big smile

৩০

শওকত মাসুম's picture


Smile Smile Smile

৩১

সাঈদ's picture


কি সুইট পিচ্চি । কি পাকনা কথা বার্তা ।

৩২

শওকত মাসুম's picture


Smile পুরাই পাকনা

৩৩

মীর's picture


রাইয়ানকে তো আমার সবসময়ই জোস্ লাগে। খুব্বি স্মার্ট কিড! আর প্রিয়ন্তীটা একটা মায়াবতী পুরা।
মাসুম ভাই আপনারে হিংসাই।

৩৪

শওকত মাসুম's picture


হিংসাইয়েন না, আপনারও দিন আসবে Smile

৩৫

মেসবাহ য়াযাদ's picture


একটা পরিবারের ৪ জন সদস্য। ৩ জনকে আমরা চিনি। আরেকজনকে না চেনানোর কারনে এই পোস্টের লেখকরে মাইনাস দিতে মঞ্চায়... Wink
ওরা দুজন ভালোভাবে বেঁচে বর্তে বেড়ে উঠুক।

৩৬

শওকত মাসুম's picture


খালি ঘরের ভিতর নজর Stare

৩৭

তানবীরা's picture


আরও অনেক দিন আসলেই বেঁচে থাকতে সাধ হয়

৩৮

শওকত মাসুম's picture


ঠিক বাজি

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

শওকত মাসুম's picture

নিজের সম্পর্কে

লেখালেখি ছাড়া এই জীবনে আর কিছুই শিখি নাই।