ইউজার লগইন

মৎস্য শিকার_------------

photo0193.jpg

ঈদের নামাজ শেষে সকলে যখন কোরবানীর পশু নিয়ে ব্যাস্ত তখন আমার জানের জান জানু মিয়া তার পুত্র-কন্যাসহ এক বিশাল বাহিনী তৈরী করে নেমে গেছে নীচু ধান ক্ষেতে যেখানে বর্ষার সময় পানি জমে ও শীতে শুকিয়ে যায়। সেই পানিতে থাকে অসংখ্য বানে ভেসে আসা মাছ।
photo0188_001.jpg

এই কচুরীপানা তুলে কাদাপানিতে মাছশিকার।
photo0202.jpg

মাছের চেয়ে সেই কাঁদায় ছিল জোঁক বেশী। আর ছিল ঢোড়া সাপ এবং ইয়া বড় বড় ব্যাঙ্গ। মাছ ধরার একাগ্রতার চেয়ে আমার পুত্রকন্যাদের মনোযোগ বেশি ছিল জোঁক ও সাপের দিকে। ওদের চিৎকার শুনে মনে হচ্ছিল মাছ ধরবার অন্যতম উপকরণ চিৎকার।
photo0194.jpg

photo0196.jpg
মাছ শিকারের পর ঘরে ফেরা। photo0195.jpg

পায়ে বাড়তি জুতার কোন প্রয়োজনই নেই।
photo0197.jpg

পরিষ্কার পানিতে পা ও মাছ ধোয়া।

photo0186_002.jpg

যখন ঘরে ফিরল তখন সূর্য হেলে পড়েছে পশ্চিমে।

মাছের সাইজ দেখে সহজেই অনুমান করা যাচ্ছে কি বড় বড় মাছ!। আমার জানুর দিকে যখন মাছের সাইজ ও পরিমান দেখালাম তখন উৎসাহে ও উত্তেজনায় টকবক করে ফুটতে ফুটতে বললো এ মাছ শুধু পিঁয়াজ দিয়ে চচ্চড়ী দারুন।
---বাছবে কে??? কোরবানীর মাংসের কি হবে??? এখানে কি ফ্রীজ আছে??

মাথার চুলে হাত বুলাতে বুলাতে আমার দিকে আড়চোখে তাকাতে লাগলো।

পোস্টটি ৩ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

নাজমুল হুদা's picture


লেখাটার বিস্তার আরও একটু বেশী হলে ভালো লাগতো । টাইপে মনোযোগী হওয়া দরকার । শিরোনামসহ মাত্র কয়েক লাইনে গোটা দশেক ভুল বানান পাঠকের পাঠ আগ্রহে বিঘ্ন ঘটায় । ছবিগুলো আরও তথ্যসমৃদ্ধ হলে তা হতো পাঠকের প্রতি সুবিচার ।

সামছা আকিদা জাহান's picture


ধন্যবাদ ভাই। শিরোনামে য-ফলাটা দেয়া হয় নাই। ব্যাঙ্গ এর ং আমি লিখতে পারছি না। পরিষ্কার ঠিক করেছি। আর ভুল গুলি যদি একটু ধরিয়ে দিতেন।

নাজমুল হুদা's picture


সেই পানিরে থাকে > সেই পানিতে থাকে,
কাঁদা পানিতে > কাদাপানিতে,
ব্যাঙ্গ > ব্যাঙ,
উপকরন > উপকরণ,
সূর্য হেলে পড়েছে পশ্চীমে > সূর্য হেলে পড়েছে পশ্চিমে,
মাথা চুলে হাত বুলাতে বুলাতে >মাথার চুলে হাত বুলাতে বুলাতে অথবা মাথা ও চুলে হাত বুলাতে বুলাতে ।
**আর শেষ ছবিটাকে কেউ কেউ রংধনু বলে মন্তব্য করেছেন, আমার কাছে তা মনে হচ্ছেনা, আপনার অভিমত কাম্য ।

সামছা আকিদা জাহান's picture


ধন্যবাদ। শেষের ছবিটা সূর্য পশ্চিমে হেলে পরার ছবি।

নাজমুল হুদা's picture


আমিও তাই-ই ভেবেছিলাম- লেখাও আছে তা, এটা সূর্য পশ্চিমে হেলে পড়ার ছবি । আর সব অভিজ্ঞ ব্যক্তিগণ কেন যে রঙধনু ভাবল তা বুঝতে পারলামনা ।

সাহাদাত উদরাজী's picture


কে রঙধনু বলেছে! আন্দা নাকি! তনে এটা আমার কাছে সুর্য্যমামা উদয়ের পরোক্ষনের মনে হচ্ছে! পুর্বদিকের ছবি মনে হচ্ছে Laughing out loud

লীনা দিলরুবা's picture


১) প্রথম ছবির পুচুকুটা চোখ আড়াল করেছে কেন! মজার ছবি।
২) সবুজের ভেতর সাদা ফুল খুব সুন্দর দেখাচ্ছে।
৩)

মাছের চেয়ে সেই কাঁদায় ছিল জোঁক বেশী। আর ছিল ঢোড়া সাপ

এই মাছ পরে তোমরা নিশ্চয়ই খাওনাই Big smile
৬) এইটা দুলাভাইর ছবি ? বাহ বাহ! ওনার অনেক গুণ।
৭) ছবিটার সাইজ ঠিক করে দাও, রঙধনুর এমন একটা ছবি তুমি তুলেছো! অনেক সুন্দর হয়েছে।

সামছা আকিদা জাহান's picture


ধন্যবাদ লীনা। এই আজব প্রানীটিই তমার দুলাভাই। বহু বে--গুনের অধিকারী।

মীর's picture


পোস্ট দারুণ হইসে। রংধনুর ছবিটা ভাল্লাগতেসে সবচাইতে বেশি। আর গ্রামের ছবি অলওয়েজ ভালু পাই। যে কারণে আপনারে ধইন্যাপাতা।

১০

সামছা আকিদা জাহান's picture


ভাই ছবিটা কেন যে অর্ধেক এল। ধন্যবাদ।

১১

হাসান রায়হান's picture


মানুষের চেহারা নাই ক্যান? হয় মুখ ঢাকে, নয়ত পেছন সাইড থেকে তোলা। ফটোগ্রাফার কে? আমার মত তারও হাত থরথর করে কাঁপে । Wink

১২

সাহাদাত উদরাজী's picture


গুরু, ছবি গুলো কার তোলা আমি একটা অনুমান করতে পারছি। কিন্তু কইলে বেয়াদপী হয়ে যাবে।

১৩

সামছা আকিদা জাহান's picture


আপনার মন্তব্য পড়ে হাসতে হাসতে তো পেটে খিল ধরলো। আমার শুধু হাত কাঁপে না পা ও কাঁপে। ধন্যবাদ।

১৪

সাহাদাত উদরাজী's picture


ছবি গুলোর থিম ভাল, ভাল লাগল।

১৫

সামছা আকিদা জাহান's picture


গুরু হাসান রায়হান এত মন্তব্যের জবাব আপনার মন্তব্যে বার বার কেন চলে আসছে বুঝতে পারছি না। মনে হয় ফটোগ্রাফার ভাইকে দেখ আমার কম্পিউটার ভয় পেয়েছে।

১৬

মাহবুব সুমন's picture


ব্যাঙ ভুনা খাইতে মজা Glasses

১৭

সামছা আকিদা জাহান's picture


ব্যাং খাইতে খুব মজা দাওয়াত রইলো।

১৮

তানবীরা's picture


আপনার জানের চেহারাটা ইট্টু আমাদের দেখাইলে কি হইতো? আমরা নজর দিতাম?

পোবল দিক্কার আপনারে। Crazy

১৯

সামছা আকিদা জাহান's picture


কেন ?? দেখানো তো শুরু করছি। এখন পিছনটা দেখুন ধিরে ধিরে ক্যামেরা সামনে যাবে।

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

সামছা আকিদা জাহান's picture

নিজের সম্পর্কে

যতবার আলো জ্বালাতে চাই নিভে যায় বারেবারে,
আমার জীবনে তোমার আসন গভীর আন্ধকারে।
যে লতাটি আছে শুকায়েছে মূল
কূড়ি ধরে শুধু নাহি ফোটে ফুল
আমার জীবনে তব সেবা তাই বেদনার উপহারে।
পূজা গৌরব পূর্ন বিভব কিছু নাহি নাহি লেশ
কে তুমি পূজারী পরিয়া এসেছ লজ্জার দীনবেশ।
উৎসবে তার আসে নাই কেহ
বাজে নাই বাঁশি সাজে নাই গেহ
কাঁদিয়া তোমারে এনেছে ডাকিয়া ভাঙ্গা মন্দির দ্বারে।
যতবার আলো জ্বালাতে চাই নিভে যায় বারে বারে।