ইউজার লগইন

যদি আসে তব কেন যেতে চায়, দেখা দিয়ে তব কেন গো লুকায়

............................................................................................................................................................................................................................
যখন তোমার সঙ্গে আমার হলো দেখা
লেকের ধারে সঙ্গোপনে
বিশ্বে তখন মন্দা ভীষণ
রাজায় রাজায় চলছে লড়াই উলুর বনে

লেকের ধারে না, ছেলেটার সঙ্গে মেয়েটার দেখা ক্লাশে। দেখা বলা হয়তো ঠিক না। বলা যায়, ছেলেটা মেয়েটিকে প্রথম দেখলো ক্লাশ রুমে।

ছেলেটি খোঁড়েনি মাটিতে মধুর জল
মেয়েটি কখনো পরে নাই নাকছাবি
ছেলেটি তবুও গায় জীবনের গান
মেয়েটিকে দেখি একাকী আত্মহারা

মেয়েটি একাকী আত্মহারাই থাকে। নতুন ক্লাশ। কেউ কাইকে চেনে না। তবুও মেয়েটির কোনো দ্বিধা নেই। সে সবার সঙ্গে মেশে কথা বলে। লাজুক ছেলেটি কেবল দূর থেকে দেখে। নামও জানে না। কেবল জানে রোল ২৬। ছেলেটির রোল ১৯।

একদিন ছেলেটিকে উৎফুল্ল দেখা যায়। ছেলেটিকে বলি, খবর কি? কোনো উত্তর দেয় না। ছেলেটি তার বন্ধুকে বলে। তার বোনটি যে বন্ধুর মতোই। রোল ২৬ এখন রোল ১৯ এর সঙ্গে অনেক কথা বলে।

দিন যায়, রাত যায়। ছেলেটিকে মাঝে মধ্যে জিজ্ঞেস করি মেয়েটির কথা। ছেলেটি বলে না। ছেলেটির মা একদিন ছেলেটির বাবাকে বলে, 'তোমার ছেলের পছন্দ আছে, ক্লাসের সেরা মেয়েটিকে পছন্দ করেছে। লেখাপড়ায় সেরা, দেখতেও সেরা।'

আরও দিন যায়। ছেলেটির বন্ধুর মতো সেই বোনটাই খবর দেয়। বলে, রোল ২৬ এখন আর রোল ১৯ এর সঙ্গে কথা বলে না। আজকাল বেশি কথা বলে রোল ১০ এর সঙ্গে। তাই রোল ১৯ এর মন একটু খারাপ।

আমার কাতর চোখ, আমার বিমর্ষ ম্লান চুল –
এই নিয়ে খেলা করে: জানে সে যে বহুদিন আগে আমি করেছি কি ভুল
পৃথিবীর সবচেয়ে ক্ষমাহীন গাঢ় এক রূপসীর মুখ ভালোবেসে,

তারপর আরও দিন যায়। যেতেই থাকে। বছরও চলে যায়। আবার নতুন ক্লাশ। মেয়েটি চলে যায় অন্য শাখায়। মেয়েটিকে আর দেখা যায় না।

কি বা হায়, আসে যায়, তারে যদি কোনোদিন না পাই আবার।
নিমপেঁচা তবু হাঁকে : ‘পাবে নাকো কোনোদিন, পাবে নাকো
কোনোদিন, পাবে নাকো কোনোদিন আর।’

নতুন ক্লাশে ছেলেটি যাচ্ছে এক মাস হয়ে গেল। উত্তুরে হাওয়া বইছিল সেদিন। ছেলেটি ক্লাশ শেষ করে আসলো। এবার আমিই জানতে চাইলাম-রোল ২৬ আর আসে না?
ছেলেটি আমার দিকে তাকিয়ে হেসে বললো, আসে তো। অন্য শাখায়। গোলাপি একটা টুপি পরে আসে এখন।
আমি মুচকি হেসে বললাম, এখনও সেই রোল ২৬ এর কথা মনে আছে? আবার খুঁজে খুঁজে বেরও করেছো?
ছেলেটি এবার বললো-''আরে আমি না, রোল ৯ আছে না, সেই যে দুষ্টু ছেলেটা, ও খালি দেখে কে টুপি পরে আসলো, কার মাথায় দুই ঝুটি.........

ছেলেটি আবার খোঁড়ে মাটি খোঁড়ে জল
মেয়েটি আবার নাকে পরে নাকছাবি
ছেলেটির চোখে মেয়েটির বরাভয়
মেয়েটিকে দেখি একাকী আত্মহারা

পাদটীকা: ছেলেটি আমার ছেলে রাইয়ান, প্লে গ্রুপ থেকে এবার কেজিতে উঠলো। মেয়েটির রোল এখন কত জানিনা। এই প্রথম কোনো বাবা তার ছেলের এই গল্প লিখলো। Smile Smile Smile

পোস্টটি ১৬ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

স্বপ্নের ফেরীওয়ালা's picture


আহা..ভাগ্যবান পুত্র Smile

~

শওকত মাসুম's picture


তাকে এইটা নিয়া ব্যাপক খেপানো হয়

রাসেল আশরাফ's picture


আহারে ভাতিজা Sad

শওকত মাসুম's picture


Smile আরে বহু সময় সামনে

রাসেল আশরাফ's picture


প্রথম ভালো লাগা Sad

শওকত মাসুম's picture


আহা, কি 'মিষ্টি' করে বললেন প্রথম ভালো লাগার কথা রাসেল। Smile

জ্যোতি's picture


পোলাডা মিষ্টি ছাড়া কিছুই জানে না।

শওকত মাসুম's picture


লজ্জা পাইয়া মনে হয় ভাগছে

রাসেল আশরাফ's picture


কিসের লজ্জ্বা মাসুম ভাই। লজ্জ্বা পাইলে কি আর বিয়া করতাম। Tongue
আপনে এখানে মিষ্টি কই পাইলেন? একবুক হাহাকার নিয়ে কইলাম।
অফটপিকঃ দৌড়ের উপর ছিলাম। Sad

১০

শওকত মাসুম's picture


বিয়া কইরা লজ্জা ভাঙছে নাকি আগেই ভাঙা ছিল

১১

জ্যোতি's picture


হাহাহা। শেষে এসে হাসতে হাসতে চোখে পানি চলে আসছে । ছেলে বাবার নাম রাখবে Smile
আরো অনেক মিষ্টি ঘটনা ঘটতেই থাকুক রাইয়ানের ।
মাসুম ভাই, বুঝলেন তো বয়স হইছে যে! তবে রাইয়ান বড় হয়ে এই লেখা পড়লে ভালোলাগায় ভরে যাবে ছেলেটা Smile

১২

শওকত মাসুম's picture


কাল রাতে আমাকে রাইয়ান জিগায়, বাবা, আমার ছেলে মেয়ের নাম কি রাখবো?
বললাম-ছেলে হলে নাম রাখবা মাসুম আর মেয়ে হলে কণা।
ছেলে সঙ্গে সঙ্গে পালটা প্রশ্ন করলো-যদি কেউ জানতে চায় দাদা-দাদীর নাম কি তাহলে কি বলবো?

১৩

জ্যোতি's picture


আল্লহ্!! ও এখনই সব ভেবে রাখছে । Smile
অনেক বড় হোক ।

১৪

টুটুল's picture


রাইয়ান বাবা তো দেখি বাপের নাম উজ্জ্বল করবো Smile

মাশাল্লাহ Wink

১৫

শওকত মাসুম's picture


বাপ তো মাসুম, জন্ম থেকেই

১৬

জেবীন's picture


গল্প কি অনেক মিষ্টি হইছে!
রাইয়ানের অনেক পাকনামি গল্প শুনেছি আগে কিন্তু এইটা সবচেয়ে দারুন, পাকনামি না বেশ সুইট!

১৭

শওকত মাসুম's picture


হ, তার সাঙ্গে ঘন্টা পর ঘন্টা নানা বিষয় নিয়ে আলাপ করা যায়, সব প্রশ্নর উত্তর আছে তার

১৮

রন্টি চৌধুরী's picture


বাপকা বেটা!

অন্তত দুইআড়াই বছর আগেই রাইয়ানের এইসব কাজকর্ম সম্পর্কে ভবিষ্যতবানী করেছিলাম Smile ফলে গেল দেখে ভালই লাগছে।

১৯

রন্টি চৌধুরী's picture


খুজে বের করলাম, দুই না, চার বছর আগের কমেন্ট ছিল ওটা Tongue

RoNty Chowdhury এই পুলার লেডিকিলার হইপে। নির্ঘাত। মাইগড! কি ঠোট, কি চোখ!!!
21 May 2009 at 18:21 ·

২০

শওকত মাসুম's picture


লিংক দেন

২২

জ্যোতি's picture


রন্টির কথা তো পুরাই ফিট Big smile

২৩

শওকত মাসুম's picture


রন্টি তো দেখি পুরাই ঠিক।

২৪

বিষণ্ণ বাউন্ডুলে's picture


রাইয়ানের পিতৃভাগ্য অসাধারণ!

দারুন হৈছে গল্প, বেশি বেশি ভাল।

২৫

শওকত মাসুম's picture


দোয়া কইরেন। তয় সামলে যেন থাকে

২৬

শাশ্বত স্বপন's picture


লেখাটা কিন্তু জব্বর অইছে।নতুন ধরনে, গদ্য ও পদ্য মিলিয়ে গল্প। বাইচতার জন্য দোয়া করি, বাপের মুখ যেন উজ্জ্বল করে।

২৭

শওকত মাসুম's picture


দোয়া কইরেন। পড়ার জন্য ধন্যবাদ

২৮

একজন মায়াবতী's picture


বুঝতে হবে রাইয়ান - ঢাকার পোলা ভেরি ভেরি স্মার্ট

২৯

শওকত মাসুম's picture


তাইতো দেখকাছি

৩০

মীর's picture


আমি আরো ভাবতেছিলাম সেই পুরোনো সাগর-সাথীর গল্প নাকি!
পরে তো যা দেখলাম আশ্চর্য হইসি বললেও কম বলা হবে...
আসলেই এই প্রথম কোনো বাবা তার ছেলের এই গল্প লিখলো।

আপনার ছেলের প্রশংসা করার জন্য সামনে অনেক সময় পাবো মাসুম ভাই, আমি বরং আপনার প্রশংসাই করি। আমি ভাবতাম নেক্সট জেনারেশন সবসময় বেশি স্মার্ট হয়। টেকনিক্যাল কারণেই সেটা হওয়ার কথা। কিন্তু ভাবনাটায় একটা বড় ধাক্কা দিয়ে গেলেন আপনি। আপনি নিশ্চিত থাকতে পারেন, আপনার পরের অনেক জেনারেশনই এত স্মার্ট আইডিয়া জেনারেট করতে ব্যর্থ হয়েছে। আর কিছু বলার নাই।

ও আরেকটা কথা বলি। সাংবাদিকতা করে বহুত টাইম নষ্ট করছেন। আপনার আসলে জায়গা সাহিত্য। মানে সাংবাদিকতা করে কোনো কিছু কম অর্জন করসেন, এমন বলতেসি না। বাংলাদেশে সাংবাদিকতা করে যা পাওয়া সম্ভব, সবই প্রায় পেয়েছেন। কিন্তু আমি বলতে চাচ্ছিলাম, আপনি সাহিত্য না করে সাহিত্যকে বঞ্চিত করছেন। সিরিয়াসলি।

যাক্ অনেক কথা বলে ফেললাম। ছেলে-মেয়ে-ভাবীকে নিয়ে ভালো থাইকেন। শুভেচ্ছা রইলো।

৩১

গৌতম's picture


একমত না! সাংবাদিকতার যে হাল, তাতে সাহিত্যিকদের এখন বেশি বেশি সাংবাদিকতায় আসা উচিত।

৩২

শওকত মাসুম's picture


এই ছেলে কয় কী! সাহিত্য আমার কর্ম না। সাহিত্যের ভাষাও আমার জানা নেই।
তারপরেও প্রশংসা শুনতে ভাল লাগে। থ্যাংকস

৩৩

তানবীরা's picture


সাংবাদিকতা করে বহুত টাইম নষ্ট করছেন। আপনার আসলে জায়গা সাহিত্য।

একমত।

খুব মিষটি মাসুম ভাই। লেখায় পাচ তারা। অসাধারণ লাগলো।

রবিবারে আমার মেয়ে বলে, মামা-খালা-কাজিন সবার বিয়েই সে দেখতে পারলো, শুধু পাপা- মামারটা বাদ দিয়ে Wink

৩৪

আরাফাত শান্ত's picture


রন্টি ভাই জিন্দাবাদ
রাইয়ান রক্স!

৩৫

শওকত মাসুম's picture


Smile Laughing out loud

৩৬

রায়েহাত শুভ's picture


বড় হইয়া পোলা যে বাপের থিকাও বেশী মাসুম হইবো সেইটা এখনি বুঝা যায় Wink

৩৭

শওকত মাসুম's picture


আমি তো অরিজিনাল মাসুম

৩৮

পারু রহমান's picture


আহা মাসুম বাচ্চাটার মাসুমিয়াত গল্প কি সুন্দর ভাবে প্রকাশ করেছেন মাসুম ভাই Smile

৩৯

শওকত মাসুম's picture


পারভীন আপা? স্বাগতম Smile

৪০

গৌতম's picture


এক্সেলেন্ট! এক্সেলেন্ট!

ভাবানুবাদ: দারুণ! দারুণ!

৪১

শওকত মাসুম's picture


থেংকু থেংকু

৪২

লীনা দিলরুবা's picture


লেখার আবেগ সত্যিই চমৎকার। রাইয়ান আধুনিক বাবা-মা পেয়েছে। একটি জিনিস আমার বেশ মজার লাগছে, কবিতাগুলো বড়দের, কিন্তু একটি ছোট্ট বাচ্চার সাথে কত অনায়াসে মানানসই করে দিলেন! রাইয়ান বিষয়ক সিরিজ চলতেই থাকুক।

৪৩

শওকত মাসুম's picture


আমার তো কবিতা পড়ার স্টক বেশি না। তাই হাতের কাছে যা পাইছি আর যা মনে ছিল Smile

৪৪

নিভৃত স্বপ্নচারী's picture


চমৎকার গল্প!
বড় হোক ভাতিজা, বাবা-মার মুখ উজ্জ্বল করুক।

৪৫

শওকত মাসুম's picture


দোয়া কইরেন

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

শওকত মাসুম's picture

নিজের সম্পর্কে

লেখালেখি ছাড়া এই জীবনে আর কিছুই শিখি নাই।