ইউজার লগইন

অসীম প্রতিক্ষা

দুই আংগুলের ফাঁকের ধুম্রশলাকাটি অবিরাম জ্বলছে। ধোঁয়াটে পরিবেশ। ছেলেটি একদৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে ভেজা রাস্তায়।

রাস্তাটি সচরাচর ধুলোমাখা থাকে। তবে আজ আকাশের মন খারাপ। তাই ইলশেগুঁড়ি বৃষ্টি হয়েছে। আর সেই কয়েক ফোটা জলে ধুলোমাখা পথঘাট কর্দমাক্ত।

গন্তব্যের দিকে ছুটে চলা প্রতিটি দ্রুতগতির গাড়ি রাস্তার কাদাজলে মাখামাখি। সাদা গাড়ির গায়ে কাদার মেটে রং সাথে হ্যালোজেন আলো এক মুগ্ধকর পরিবেশ।

ঘরের বাইরে মনোমুগ্ধকর পরিবেশ আর ঘরের ভেতরে ধোঁয়াটে আবেশ। সব মিলিয়ে একটি অতিসাধারণ রাত একজন নিভৃতচারীর কাছে। তার কাছে সকল রাতই অতিসাধারণ। ছেলেটির ধারনা তার রাতের দরকার নাই, কিন্তু রাতের তাকে প্রয়োজন। রাত তার কাছে শুধুই কিছু সময়ের ব্যাপ্তি, কিন্তু অনেকের কাছেই হয়তো নতুন কিছুর শুরু।

হয়তো এমনই এক প্রেমময় রাতে কারো প্রেমিকা, কারো বধু তার প্রিয়তমের বুকে মাথা রেখে অনাগত ভবিষ্যতের স্বপ্নে বিভোর। হয়তো কোনো এক নারী বাধ্য হচ্ছে পাশবিক আনন্দের উপকরণ হতে। হয়তো কারো জীবনের শেষ কয়েকটি প্রহর অতিক্রান্ত হচ্ছে। হয়তো জন্ম নিচ্ছে কোনো নতুন প্রাণ, অথবা সৃষ্টি হচ্ছে কোনো নব্য ভ্রুণ। সকলই সম্ভব কালের বিবর্তনে।

কিন্তু যে ছেলেটি আংগুলের ফাঁকে পরম যত্নে ধরে রেখেছিলো একটি ধুম্রশলাকা, সে ই একমাত্র থেমে আছে। কিন্তু থেমেনেই তার ঘরের দেয়াল ঘড়িটি। সে অবিরাম চলমান। বয়স বেড়ে যাচ্ছে ছেলেটির, কিন্তু এসব নিয়ে সে ভাবেনা। সে সর্বদাই বর্তমান নিয়ে সময়ের অপচয় করে যাচ্ছে।

সে ঠায় দাঁড়িয়ে আছে সেই যায়গায়, যেখানে একদা কেউ তার হাতের বাঁধন ছেড়ে গিয়েছিলো। ফিরবে কিনা বলে যায়নি। অপেক্ষায় থাকতেও বলেনি। তবুও ছেলেটি অপেক্ষায় থাকে, আর ভাব হয়তো ে, বিশ্বাস করে। একদিন মেয়েটি ফিরবে। হাতে হাত রেখে বলবে, "দেড়ি হোক তবু যায়নি সময়"।

ছেলেটির প্রতিক্ষার কি শেষ হবে? সব প্রতিক্ষা কি আসলেই ফলাফল বয়ে আনে?

পোস্টটি ১১ জন ব্লগার পছন্দ করেছেন

তানবীরা's picture


ছেলেটিরে বার বার বলা হয়েছে, মেয়ের কথা ভাবা বনধ করে তার নিজের চরকায় তেল দিতে Tongue

ননসেন্স's picture


ছেলেটি অনেক চেষ্টা করে জানেন? কিন্তু কিছুতেই মেয়েটির কথা ভুলতে পারেনা। মেয়েটি কিভাবে যেনো ছেলেটির রন্ধ্রে জড়িয়ে গেছে Sad

সামছা আকিদা জাহান's picture


প্রতিক্ষা হবে যখন ধুম্রশলাকা আঙুলে ছ্যাকা দেবে। :bigsmail:

ননসেন্স's picture


ভাগ্যিস ছ্যাকা খেয়েছিলো!!!! Tongue :v

টোকাই's picture


মেয়েটির কথা ভাবা ছাড়া ছেলেটি আর করবেই বা কি? না ভাব্লে মেয়েটা যদি মাইন্ড খায়? Wink

ননসেন্স's picture


ভাবলেও যে মাইন্ড খাবে না, এই গ্যারান্টি কে দিবে??? Steve

বিষণ্ণ বাউন্ডুলে's picture


এটা গল্প হলেও পারতো..

ননসেন্স's picture


তাই তো লিখতে চেয়েছিলুম Shock

আরাফাত শান্ত's picture


Smile

১০

ননসেন্স's picture


Sad( Puzzled

মন্তব্য করুন

(আপনার প্রদান কৃত তথ্য কখনোই প্রকাশ করা হবেনা অথবা অন্য কোন মাধ্যমে শেয়ার করা হবেনা।)
ইমোটিকন
:):D:bigsmile:;):p:O:|:(:~:((8):steve:J):glasses::party::love:
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code> <ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd> <img> <b> <u> <i> <br /> <p> <blockquote>
  • Lines and paragraphs break automatically.
  • Textual smileys will be replaced with graphical ones.

পোস্ট সাজাতে বাড়তি সুবিধাদি - ফর্মেটিং অপশন।

CAPTCHA
This question is for testing whether you are a human visitor and to prevent automated spam submissions.

বন্ধুর কথা

ননসেন্স's picture

নিজের সম্পর্কে

পৃথিবীতে দুই ধরনের মানুষের কষ্ট কম, এক মহাপুরুষ আর দুই নির্বোধ । মহাপুরুষ হওয়া সম্ভব নয় বলে আজ আমি নির্বোধ ।
আমি একজন বোকা মানুষ । তবুও এইটা বুঝি যে, যুদ্ধ নয় তর্কই এনে দিতে পারে প্রকৃত সমাধান ।